kalerkantho


ভারতের নাগরিকত্ব চায় ১২ হাজার পাকিস্তানি, অপেক্ষায় ১৩ হাজার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১২:৫৯



ভারতের নাগরিকত্ব চায় ১২ হাজার পাকিস্তানি, অপেক্ষায় ১৩ হাজার!

পাকিস্তান আর ভাল্লাগছে না বা স্বাস্তিকর ঠেকছে না! আসল ঘটনা যাই হোক, ১২ হাজার পাকিস্তানি নাগরিক হতে চাচ্ছেন ভারতের নাগরিক। এই দাবি করেছে নয়াদিল্লি।

বুধবার নয়াদিল্লি জানায়, ভারতের নাগরিকত্ব চেয়ে আবেদন করেছে প্রতিবেশী দেশটির ১২ হাজার নাগরিক। এ ছাড়া আরো ১২ হাজার ৮০০ পাকিস্তানি নাগরিক দীর্ঘমেয়াদি ভারতীয় ভিসার জন্য আবেদন করেছেন। প্রসঙ্গত, কোনো দেশে দীর্ঘমেয়াদি ভিসায় থাকাদের জন্য পরবর্তী ওই দেশের নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করা সহজতর হয়।

তবে ভারতীয় বনতে চাওয়া ওই পাকিস্তানিরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের।

ভারতীয় মিডিয়া প্রকাশিত খবরে জানা যায়, দেশটির স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজু বলেছেন, ভারতের নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেছেন ১২ শ সংখ্যালঘু পাকিস্তানি। একই সঙ্গে দেশটির ১২ হাজার ৮০০ নাগরিক দীর্ঘমেয়াদে ভারতে থাকার জন্য ভিসার আবেদন করেছে।

বুধবার রাজ্যসভায় দেওয়া বক্তব্যে কিরেন রিজু বলেন, ২০১৬ সালের মন্ত্রণালয়ের অভিবাসন, ভিসা ও বিদেশিদের নিবন্ধনের তথ্য অনুযায়ী ১২ হাজার ৮ শতাধিকের বেশি দীর্ঘমেয়াদি ভিসার জন্য ও ১২ শ সংখ্যালঘু পাকিস্তানি ভারতের নাগরিকত্ব চেয়ে অনলাইনে আবেদন করেছে।

তিনি জানান, নাগরিকত্ব ও ভিসা আবেদন কার্যক্রমে গতি আনতে সম্প্রতি অনলাইনে আবেদনের ব্যবস্থা করেছে ভারত। একই সঙ্গে সংখ্যালঘুদের জন্য ভিসা আবেদনের ফি কমানো হয়েছে।

একই সঙ্গে বাংলাদেশ, পাকিস্তানসহ কয়েকটি প্রতিবেশী দেশের সংখ্যালঘুদেরকে ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার ক্ষমতা জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের হাতে দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেশী দেশের সংখ্যালঘু হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান, জৈন প্রভৃতি ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য এই ব্যবস্থা করেছে হিন্দুপ্রধান ভারত।

২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে ভারতে আশ্রয় প্রার্থনা করে আবেদন করা প্রতিবেশী দুই দেশের সংখ্যালঘুদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করারও নির্দেশনা রয়েছে সম্প্রতি সংশোধিত ভারতের পাসপোর্ট ও ফরেনার আইনে।

 


মন্তব্য