kalerkantho


মায়ের মৃতদেহ নিয়ে বরফে ঢাকা ৫০ কিলোমিটার পাহাড়ি পথ পাড়ি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:৪৩



মায়ের মৃতদেহ নিয়ে বরফে ঢাকা ৫০ কিলোমিটার পাহাড়ি পথ পাড়ি

মায়ের মৃতদেহ নিয়ে হাঁটু সমান বরফে ঢাকা ৫০ কিলোমিটার পাহাড়ি পথ পেরিয়ে ঘরে ফিরতে বাধ্য হয়েছেন এক ভারতীয় সেনা।
 
কাশ্মীরের কুপওয়রার কারনাথ তহসিলের বাসিন্দা মুহাম্মদ আব্বাসের পোস্টিং ছিল পাঠানকোটে।

কাশ্মীরের কঠিন ঠাণ্ডায় থাকতে পারবেন না বলে সেখানেই মাকে নিয়ে গিয়ে রেখেছিলেন আব্বাস। কিন্তু গত ২৮ জানুয়ারি হৃদরোগে মৃত্যু হয় তার মায়ের। পরদিনই মায়ের মৃতদেহ নিয়ে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে বেড়িয়ে পড়েন আব্বাস। কাশ্মিরের শ্রীনগরে এসে তিনি পড়ে ‌যান মহা বিপদে। কুপওয়ারা ‌যাওয়ার সব রাস্তা বন্ধ। বরফে ঢেকে গেছে গোটা রাস্তা।
 
বাধ্য হয়েই তিনি সেনাবাহিনীর সঙ্গে ‌যোগা‌যোগ করেন এবং অনুরোধ করেন, একটা হেলিকপ্টারের ব্যবস্থা করতে। ‌যোগা‌যোগ করেন জেলা প্রশাসনের সঙ্গেও। টানা তিন দিন কোনো সাহা‌য্য না পেয়ে দুঃসাহসিক এক সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন আব্বাস।
 
বেশ কয়েকজন আত্মীয়ের সঙ্গে মায়ের মৃতদেহ কাঁধে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে হাঁটতে শুরু করেন মুহাম্মদ আব্বাস। হাঁটু-সমান বরফে টানা ৫০ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে গত বৃহস্পতিবার তিনি বাড়িতে পৌঁছান।
 
এ ব্যাপারে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ফার্স্টপোস্টকে আব্বাস জানান, ঠিক সময়ে মায়ের শেষকৃত্য করতে পারলাম না। অত্যন্ত অপমানজনক ব্যাপার। জেলা প্রশাসন আমাদের কয়েকদিন ধরে অপেক্ষা করিয়ে রাখল। কোনো হেলিকপ্টারের ব্যবস্থা করল না। আমরা ‌যে পথ পেরিয়ে এসেছি সেখানে তুষার ধস নিত্যদিনের ঘটনা।
 
এদিকে এই ঘটনায় চাপে পড়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সব ধরনের ব্যবস্থাই করা হয়েছিল। কিন্তু আব্বাসের আত্মীয়রা মৃতদেহ কাঁধে নিয়েই গ্রামের উদ্দেশে বেরিয়ে পড়েন।

 


মন্তব্য