kalerkantho


ট্রাম্পের খপ্পর এড়াতে এবারও কি ঝোপে লুকোবেন রানি এলিজাবেথ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:০২



ট্রাম্পের খপ্পর এড়াতে এবারও কি ঝোপে লুকোবেন রানি এলিজাবেথ!

রানি এলিজাবেথ রোমানিয়ার সাবেক স্বৈরশাসক নিকোলাই চসেস্কুকে এতটাই অপছন্দ করতেন যে একবার তার মুখদর্শন এড়াতে ঝোপঝাড়ে গিয়ে লুকিয়েছিলেন। সময়টা ছিল ১৯৭৮ সাল যখন চসেস্কু প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাষ্ট্রীয় সফরে ব্রিটেন যান। এ দাবি করেছেন ব্রিটিশ রাজপরিবারের লেখক রবার্ট হার্ডম্যান।

১৯৭৪ সাল থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত রোমানিয়া শাসন করেন চসেস্কু। ১৯৮৯ সালের ২৫ ডিসেম্বর এক সামরিক আদালত মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই ফায়ারিং স্কোয়াডে নেওয়া হয় তাকে ও তার স্ত্রীকে। সেখানে গুলিতে ঝাঝরা হয়ে নির্মম মৃত্যু হয তাদের। ওই দম্পতির শরীরে মোট ১২০টি বুলেট বিদ্ধ হয়েছিল বলে জানা যায়।

এদিকে, ৭৮ সালের ওই রাষ্ট্রীয় সফরে স্ত্রী এলেনাকে নিয়ে বাকিংহাম প্রাসাদে যান চসেস্কু। একপর্যায়ে তারা রাজপ্রাসাদের বাগানে ঘুরতে যান। একই সময়ে রানি তার প্রিয় পোষা কুকুরটিকে নিয়ে বাগানে হাঁটাচলা করছিলেন। এসময় চসেস্কু দম্পতিকে আসতে দেখে ৫২ বছর বয়সী রানি দৌড়ে বেশ কিছুটা দূরে এক ঝোপের আড়ালে চলে যান।

হার্ডম্যান দাবি করেন, চসেস্কুর সঙ্গে 'জোর করে সৌজন্যসূচক বাতচিত' এড়াতেই এলিজাবেথ এমনটি করেছিলেন।

চসেস্কু বিষয়ে এলিজাবেথের এই বিরাগের বিষয়টি উঠে এসেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্পের যুক্তরাজ্য সফরের বিরুদ্ধে আবেদনে দশ লাখেরও বেশি নাগরিকের স্বাক্ষর সংগ্রহের পর। তাদের দাবি, ব্রিটিশ সরকার ট্রাম্পের ব্রিটেন সফর বাতিল করুক। ক্ষমতায় এসেই মুসলিম প্রধান সাতটি দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ৯০ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প।     

এমন অবস্থায় রানিকে সর্বদা রাজনৈতিক বিতর্কের ঊর্দ্ধে রাখতে সচেষ্ট ব্রিটিশ সরকার বেশ বেকায়দায়ই আছে। কারণ, এত বিশাল সংখ্যক নাগরিকের আবেদন এড়ানো কঠিন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র তো তাদের প্রধানতম মিত্র। একইভাবে রানি নিজেও একই সংকটে আছেন। ব্রিটিশ সরকার ও রানির জন্য বিব্রতকর এমন পরিস্থিতিতে ১৯৭৮ সালের চসেস্কু আখ্যান তুলে ধরেন হার্ডম্যান।

রসিকজন প্রশ্ন করছেন, তাহলে কি শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প যদি যুক্তরাজ্য সফরে আসেনই তখন রানি এলিজাবেথ চসেস্কুর সঙ্গে যা করেছিলেন তাই করবেন? তবে রানির তখন বয়স ছিল ৫২ বছর আর এখন তিনি ৯০ বছরের অশীতিপর। সুতরাং ট্রাম্পকে এড়াতে হয়তো অন্য কোনো ফন্দিই এবার নিতে হবে তাকে।

 


মন্তব্য