kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সিন্ধু পানি চুক্তি লঙ্ঘন হলে ব্যবস্থা নেব: ইসলামাবাদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০৪:০৮



সিন্ধু পানি চুক্তি লঙ্ঘন হলে ব্যবস্থা নেব: ইসলামাবাদ

সিন্ধু পানি চুক্তি লঙ্ঘন করলে সমুচিত পদক্ষেপ নেবে বলে হুমকি দিল ইসলামাবাদ। চুক্তি নিয়ে ভারতের পদক্ষেপের ওপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে বলেও সতর্ক করল পাক সরকার।

বৃহস্পতিবার পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাফিস জাকারিয়া জানিয়েছেন, ‘ভারতের পক্ষ থেকে চুক্তির লঙ্ঘন করা হলে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেয়া হবে। ’ রেডিও পাকিস্তান সূত্রে এই খবর জানিয়ে বলা হয়েছে, পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে।

৫৬ বছরের পুরনো সিন্ধু জলচুক্তি খতিয়ে দেখছে ভারত। এই সংবাদ ছড়িয়ে পড়তেই পাকিস্তানের তরফে বিবৃতি দেয়া হয়, কাশ্মীরে নির্যাতন এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগের থেকে দৃষ্টি ঘোরাতেই চুক্তিকে হাতিয়ার করেছে দিল্লি।

এদিন জাকারিয়া আরও জানান, কাশ্মীরে ভারতের বৈষম্যমূলক আচরণ সম্পর্কে আন্তর্জাতিক মহলে জানানোর ফলে 'অত্যন্ত বাস্তবচিত' প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে। চলতি বছরে সংঘর্ষ-বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে নিয়ন্ত্রণরেখায় মোট ৯০ বার ভারত হামলা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ জানান তিনি। সেই সঙ্গে মন্তব্য করেন, বিশ্বের দরবারে পাকিস্তানকে একঘরে করার ভারতীয় প্রয়াস 'হাস্যকর'। তাঁর মতে, ভারতের নেতিবাচক ভাবমূর্তির কারণে আঞ্চলিক উন্নতিতে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে।

ভারত-পাক সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরে সম্প্রতি হিন্দি ছবি থেকে পাক অভিনেতাদের বাদ পড়া প্রসঙ্গেও মুখ খোলেন জাকারিয়া। ঘটনাটি তিনি 'অত্যন্ত দুঃখজনক এবং নিন্দনীয়' বলে অভিহিত করেন। শুধু তাই নয়, নিজের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার জন্য সার্ক-কে কাজে লাগানো হয়েছে বলেও ভারতকে কাঠগড়ায় তুলেছেন পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র।

দ্বিপাক্ষিক সংঘাত শেষ করতে আমেরিকার হস্তক্ষেপ দাবি করে এদিন জাকারিয়া বলেন, 'আমাদের আমেরিকান বন্ধুদের বার বার আর্জি জানাচ্ছি, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিরোধের বিষয়গুলি, বিশেষ করে কাশ্মীর ইস্যু সম্পর্কে হস্তক্ষেপ করে মীমাংসা করুন। মনে রাখবেন, অতীতেও পাকিস্তান মধ্যস্থতাকে স্বাগত জানিয়েছে। '

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য