kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সিংহের সঙ্গে লড়াই করে দিন কাটে দুই বোনের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৬ ০১:৪০



সিংহের সঙ্গে লড়াই করে দিন কাটে দুই বোনের

‘বাঘের সঙ্গে যুদ্ধ করিয়া আমরা বাঁচিয়া আছি। ’ সতেন্দ্রনাথ দত্তের বিখ্যাত কবিতা ‘আমরা বাঙালি’র একটি লাইনটা অনায়াসে বসিয়ে দেয়া যায় গুজরাটের আমরেলি জেলার দুই বোনের সম্পর্কে।

তবে এ ক্ষেত্রে বাঘ নয়, সিংহ। সামান্য লাঠি সম্বল করে সিংহের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে এই দুই টিন এজার।

গুজরাটের গির অরণ্যেই একমাত্র দেখা পাওয়া যায় এশীয় সিংহের। এই অরণ্যের পাশেই মেনধাওয়াস গ্রাম। আমরেলি জেলার এই গ্রামেই বাস ১৯ বছরের সন্তোক রাবারি ও তাঁর ছোট বোন ১৮ বছরের মাইয়ার। এই গ্রামের গবাদি পশুর দিকে নজর বনের রাজার। গরু-বাছুর টেনে নিয়ে যেতে মাঝে মধ্যেই গ্রামে হানা দেয় সিংহ। এর মধ্যে অনেকবারই তাকে মুখোমুখি হতে হয় সন্তোক ও মাইয়ার। অসমসাহসী দুই কিশোরী বোন সামান্য লাঠি সম্বল করে ঝাঁপিয়ে পড়ে তাদের পোষা প্রাণীগুলোকের রক্ষায়।

লাঠি হাতে সিংহের মুখোমুখি সোজা দাঁড়িয়ে থাকতে পারলে সিংহ পেছন ঘুরে চলে যায় বলে জানিয়েছেন সন্তোক। তবে হ্যাঁ, সিংহের চোখের থেকে চোখ সরানো যাবে না। কোনওদিন ভয় হয়নি, সিংহ যদি পাল্টা ঝাঁপিয়ে পড়ে? প্রশ্ন শুনে মুচকি হাসলেন সন্তোক। বাবা প্রায় দশ বছর ধরে স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী। সংসার চালাতে ওই গোরুগুলোই ভরসা। সিংহ তাদের টেনে নিয়ে গেলে এমনিতেই না খেয়ে মরতে হবে। তাই সিংহের মুখোমুখি দাঁড়াতে মোটেও ভয় করে না বলে জানালেন দুই বোন। তাঁদের এই অসম সাহসিকতার জন্য সম্প্রতি গুজরাট বন দপ্তরের তরফে তাঁদের পুরস্কৃত করা হয়েছে।

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য