kalerkantho


শেষ বিতর্কেও হিলারি জয়ী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:৩৯



শেষ বিতর্কেও হিলারি জয়ী

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন তৃতীয় ও শেষ বিতর্কেও জয়ী হয়েছেন। যথারীতি তিনি রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করেছেন।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের জরিপের ফলাফলে এমনটাই বলা হয়েছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের এই দুই প্রার্থী স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যায় (বাংলাদেশে আজ বৃহস্পতিবার সকাল) লাস ভেগাসের ইউনিভার্সিটি অব নেভাদায় তৃতীয় দফা মুখোমুখি বিতর্কে অংশ নেন।
আগামী ৮ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তিন সপ্তাহেরও কম সময় আগে তারা এই চূড়ান্ত বিতর্কে অংশ নিলেন।
এবারও তারা পরস্পরকে আক্রমণ করে কথা বলেন। এই আক্রমণের তীব্রতা দ্বিতীয় বিতর্কের চেয়ে কম ছিল বলে মত পর্যবেক্ষকদের।
৯০ মিনিটের বিতর্কের সঞ্চালক ছিলেন ফক্স নিউজের ক্রিস ওয়ালেস। সিএনএনসহ অধিকাংশ মার্কিন টিভি নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেটে এই বিতর্ক সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।
বিতর্কের পর এক জরিপে দেখা গেছে, ৫২ শতাংশ দর্শক মনে করেন, হিলারি জয়ী হয়েছেন। ৩৯ শতাংশ মনে করেন, ট্রাম্প জয়ী।
এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় বিতর্কেও সুস্পষ্ট ব্যবধানে হিলারি জয়ী হয়েছিলেন।
তৃতীয় বিতর্কে অভিবাসন, সামাজিক নিরাপত্তা, সুপ্রিম কোর্ট, অর্থনীতি, বৈদেশিক নীতি, প্রেসিডেন্ট হিসেবে যোগ্যতা, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, গর্ভপাত প্রভৃতি বিষয় উঠে আসে। বিভিন্ন ইস্যুতে দুই প্রার্থীর মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়।
নির্বাচনে হিলারি জিতলে তা মানবেন কিনা সঞ্চালকের এমন প্রশ্নে ট্রাম্প বলেন, ফলাফল দেখে তা বলবেন তিনি। হিলারি এই মন্তব্যকে ‘ভয়ংকর’ বলে উল্লেখ করেন ।
তৃতীয় এই বিতর্কেও দুই প্রার্থী একে অপরকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেন।
রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর বিরুদ্ধে একাধিক নারী যেসব যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন, তা বিতর্কে টেনে এনে হিলারি বলেন, ট্রাম্প মনে করেন, নারীদের ছোট করতে পারলেই তিনি বড় হন।
এদিকে ট্রাম্প তার বিরুদ্ধে আনা যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রত্যাখান এবং এর জন্যে উল্টো হিলারিকে আক্রমণ করেন। ট্রাম্পের দাবি, তার চেয়ে বেশি আর কেউ নারীদের সম্মান করেন না।
ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিভেদ তৈরির অভিযোগ তুলে হিলারি ট্রাম্পকে সহিংসতার উস্কানিদাতা বলে মন্তব্য করেন। এছাড়া তিনি ট্রাম্পকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ‘পুতুল’ বলেও মন্তব্য করেন।
তিনি বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। কারণ এ নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী হলে তিনি হবেন পুতিনের পুতুল।
এদিকে ট্রাম্পের অভিযোগ, হিলারি কাজে নন, কেবল কথায় পটু।


মন্তব্য