kalerkantho


‘মিথ’ নয়, এখনো বইছে সরস্বতী নদী: রিপোর্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০১:১১



‘মিথ’ নয়, এখনো বইছে সরস্বতী নদী: রিপোর্ট

গঙ্গা-যমুনা-সরস্বতী। ভারতভূমির প্রাচীন তিন নদীর উল্লেখ রয়েছে বহু পুরাণে। এর মধ্যে সরস্বতী নদী বলে আদৌ কোনো নদী ছিল কিনা, থাকলেও তার অস্তিত্ব এখনো রয়েছে কিনা, এ নিয়ে নানা বিতর্ক রয়েছে। তবে সরস্বতী নদী নিয়ে গবেষণায় কেন্দ্রীয় সরকারের গঠিত কমিটি জানিয়ে দিল, সরস্বতী নদীর অস্বিত্ব এখনো রয়েছে।

বছরের পর বছর ‘মিথ’ হিসেবে গণ্য সরস্বতী নদী নিয়ে গবেষণার জন্য নদী বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক কেএস ভালদিয়ার নেতৃত্বে একটি প্যানেল গঠন করে কেন্দ্র। সেই কমিটি গবেষণার যে রিপোর্টটি পেশ করেছে, তাতে বলা হয়েছে, সরস্বতী নদী আগেও ছিল। এখনো বইছে। কেএস ভালদিয়ার কথায়, ‘সরস্বতী নদী এখনো বয়ে চলেছে। নদীটির উত্‍‌স হিমালয়, পশ্চিম সাগরের গাল্ফে গিয়ে মিশেছে। দীর্ঘ গবেষণার পর আমরা এই সিদ্ধান্তেই শিলমোহর দিয়েছি। ’

বিশেষজ্ঞ প্যানেলের রিপোর্ট দেখে কেন্দ্রীয় পানিসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী উমা ভারতী বলেছেন, ‘এই রিপোর্টের ভিত্তিতে সরকার পদক্ষেপ করবে। ’ রিপোর্টকে চ্যালেঞ্জ করা যাবে না বলেও জোরাল দাবি উমা ভারতীর।

ভালদিয়া জানিয়েছেন, সরস্বতী নদী বয়ে গেছে হরিয়ানা, রাজস্থান ও উত্তর গুজরাট দিয়ে। সেন্ট্রাল গ্রাউন্ড ওয়াটার বোর্ড (CGWB)-এর এক কর্মকর্তার দাবি, কচ্ছের রান হয়ে পশ্চিম সাগরে মেশার আগে সরস্বতী নদী পাকিস্তানের ভেতরে বইছে। নদীটি দৈর্ঘ্যে প্রায় ৪ হাজার কিলোমিটার। নদীটির এক তৃতীয়াংশ বয়ে গেছে পাকিস্তানে ও দুই তৃতীয়াংশ, অর্থাত্‍‌ প্রায় ৩ হাজার কিলোমিটার বইছে ভারতে।

কেন্দ্রীয় পানিসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী জানিয়েছেন, সরকার এই রিপোর্টের একটা খসড়া তৈরি করবে। তারপর একটি কনভেনশনের প্রস্তুতি নেবে।

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য