kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


থাইল্যান্ডের এই রাজার তিন রানী, তিনশ’ গার্লফ্রেন্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০১:০৬



থাইল্যান্ডের এই রাজার তিন রানী, তিনশ’ গার্লফ্রেন্ড

ভূমিবল আদুলাদেজের মৃত্যুর পর থাইল্যান্ডের নতুন মহারাজা এখন বজিরালংকর্ণ। আর এই নতুন মহারাজাকে নিয়েই যত আশঙ্কা।

রাজা বলে রাজা। গল্পে যেমন বেশ কিছু রাজাদের নামে লেখা হয়, রাজা মানেই নারী-সুরা আর অত্যাচারী, রাজা মানেই বেহিসাবে জীবন। বজিরালংকর্ণকে নিয়েও এমনই কথা শোনা যাচ্ছে। বজিরালংকর্ণের জীবনটা পুরো বেহিসাবি। ৩টি বিয়ে করেছেন। মাঝেমাঝেই অর্ধনগ্ন হয়ে রাস্তায় ঘোরেন। বিদেশে দেশের দূত হয়ে গেছেন অর্ধনগ্ন হয়ে মদও খান অনেক পরিমাণে। ২০০৮ সালে জন্মদিনের পার্টিতে অনেক নগ্ন নারীর সঙ্গে নাচা অবস্থায় ছবি বের হওয়ার পর বিতর্কে জড়ান। এখানেই শেষ নয়। বজিরালংকর্ণ যে রাজা হিসেবে খারাপ হবেন সেটা আগেই বলেছিলেন ভূমিবল আদুলাদেজে। ভূমিবল অবশ্য তাই বলে পরম্পরা ভাঙতে চাননি। দেশের প্রধানমন্ত্রীও একই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন সাত বছর আগে।

নিয়ম মেনেই বাবার আসনে রাজার মুকুটি চড়িয়ে বসেছেন বজিরালকর্ণ। এখানেই আশঙ্কা। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন তো! বজিরালকর্ণকে অনেকেই পাগলা রাজা বলে ডাকছেন। নতুন রাজাকে নিয়ে বড় বদনাম হল তিনি নাকি এক জায়গায় বেশিক্ষণ বসতে পারেন না। কথা শোনার ধৈর্য্য নাকি খুব কম। মেজাজটাও এত চড়া যে, যখন তখন যার তার গায়ে হাত চালিয়ে দেন। বজিলারলকর্ণের লাইফস্টাইল দেখে অনেকে ওনাকে বলেন, প্লেবয় প্রিন্স। এক ব্রিটিং দৈনিকে বজিরালংকর্ণকে নিয়ে লেখা হয়, এ রাজার স্ত্রী ৩টি, গার্লফ্রেন্ড ৩০০টি!  

একবার বজিরালকর্ণ এক কাণ্ড ঘটান। সাত সন্তানের বাবা বজিরালকর্ণ, ফাইটার জেট চালাতে গিয়ে নিজের ছোট্ট শিশুকে কোলে চড়িয়ে নেন। বাবার কীর্তিতে মেয়ে জ্ঞান হারান। নতুন রাজা প্রথমে বিয়ে করেছিলেন তাঁর পিসতুতো বোনকে। তারপর দেশের এক সুন্দরী নায়িকাকে। দু’বারই তাঁর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছিল। তৃতীয় বিয়ের পর তো স্ত্রী-র নগ্ন ছবি তুলে পোস্ট পর্যন্ত করেছিলেন।

সত্যি রাজা বটে। এমন রাজা সিংহাসনে থাকলে দেশের ঘুম হয়!!! তবে ঘুমের ট্যাবেলট বিক্রির কোম্পানিগুলো বেজায় খুশি হবে।  

সূত্র: জিনিউজ


মন্তব্য