kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আসন্ন? পরপর পরমাণু মিসাইল পরীক্ষা রাশিয়ার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০৯:১৮



তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আসন্ন? পরপর পরমাণু মিসাইল পরীক্ষা রাশিয়ার

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ বাধতে চলেছে কি না এই নিয়ে যখন উত্তেজনার পারদ চরমে, তখনই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা উসকে দিল রাশিয়া। সিরিয়া নিয়ে বিতর্কে আমেরিকার দিকে চোখরাঙানি আরও কয়েক গুণ বাড়িয়ে বৃহস্পতিবার তিনটি ব্যালেস্টিক মিসাইলের পরীক্ষামূলক উত্‍‌ক্ষেপণ করলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।


রাশিয়ার উপকূলে ব্যারেন্টস সি-র একটি ডুবোজাহাজ থেকে প্রথমে উত্‍‌ক্ষেপণ করা হয় বিশ্বের দ্রুততম টোপোল মিসাইল। এরপর দেশের উত্তর-পশ্চিমের একটি দ্বীপ থেকে ছাড়া হয় দ্বিতীয় মিসাইলটি। তৃতীয় মিসাইলটি ছিল পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম। এটি জাপানের উত্তরে ওখোত্‍‌স্ক সাগরে রাশিয়ার প্রশান্ত মহাসাগরীয় নৌবহরের একটি ডুবোজাহাজ থেকে উত্‍‌ক্ষেপণ করা হয়।
সিরিয়ায় সংঘর্ষবিরতি চুক্তি সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ায় আমেরিকা ও রাশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক যখন তলানিতে এসে ঠেকেছে, ঠিক সেই সময় রাশিয়ার এই শক্তি প্রদর্শনকে যুদ্ধের ইঙ্গিত হিসেবেই দেখছে পশ্চিমের দেশগুলি। তবে, একে রুটিন পরীক্ষা বলেই দাবি করেছেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগু।
গত কয়েক মাসে এধরনের বেশকিছু পরীক্ষা-নীরিক্ষা চালিয়েছে পুতিনের দেশ। পাশাপাশি পুরোদমে চলেছে সেনা মহড়াও। পরমাণু যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে গত সপ্তাহে সরকারের তরফে নির্দেশ এসেছে যে ৪ কোটি মানুষকে নিয়ে মহড়া করতে হবে। অল-আউট অ্যাটাকের ইঙ্গিত দিয়েছেন সে দেশের আধিকারিকরা ও সংবাদমাধ্যম। সরকারি আমলা, কর্মী ও রাজনীতিকদের তাঁদের সন্তানদের বিদেশের স্কুল থেকে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কূটনীতিকদের আত্মীয়স্বজনকেও দেশে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রাশিয়ার এক রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, এগুলি হল কোনও বড় যুদ্ধের আগে নেওয়া যাবতীয় প্রস্তুতি। এইসময়


মন্তব্য