kalerkantho


বোরখা পড়ে মহিলার শ্লীলতাহানি করতে গিয়ে ধরা পড়লেন হিন্দু পরিষদ নেতা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৩



বোরখা পড়ে মহিলার শ্লীলতাহানি করতে গিয়ে ধরা পড়লেন হিন্দু পরিষদ নেতা

প্রতীকী ছবি

তিনি নেহাতই হিন্দুত্ববাদী। তা বলে কি বোরখা পড়তে মানা? আর বোরখা পড়লে তিনি যোগ দিতেই পারেন মহরমের মিলাদে। আর বোরখা পড়ে মিলাদে প্রবেশ করে মহিলাদের সঙ্গে অসভ্যতাও বোধ হয় করাই যায়। এমনটাই সম্ভবত ভেবেছিলেন ইলাহাবাদের বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা অভিষেক যাদব। মনি-উমরপুর গ্রামের এক মিলাদে বোরখা পড়ে প্রবেশ করে মহিলাদের শ্লীলতাহানি করে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন অভিষেক ও তাঁর এক সহযোগী।

খবরে প্রকাশ, মিলাদ চলাকালে যখন মৌলবিরা দোয়াপাঠ ইত্যাদি করছিলেন তখনই জমায়েত থেকে এক মহিলা উঠে এসে জানান, এক বোরখা পরিহিত পুরুষ তাঁর সঙ্গে অসভ্যতা করেছে। সমবেত মানুষ এতে বেধড়ক ক্ষেপে যান এবং সেই ব্যক্তিকে ধরে ফেলেন। বোরখা খুলে ফেলতেই দেখা যায়, তিনি আর কেউ নন, স্থানীয় বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা অভিষেক যাদব। অভিষেকের কপালে চড়-চাপড়ও জোটে। কিন্তু তাঁর সহযোগীটি চম্পট দিতে সমর্থ হন। পরে অভিষেককে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তাঁর বিরুদ্ধে এফএইআরও করা হয়।

অভিষেকের পরিবারের তরফ থেকে অবশ্য এ অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, অভিষেককে মনি-উমরপুর গ্রামে কিছু দুষ্কৃতি আক্রমণ করেছিল।  

প্রসঙ্গত, অভিষেক যাদব বিজেপি জেলা পঞ্চায়েত সদস্যা শিপ্রা যাদবের স্বামী।
সূত্র-এবেলা 


মন্তব্য