kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মেয়েকে নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:১১



মেয়েকে নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প!

আমেরিকার গণমাধ্যমে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কিছু পুরনো রেকর্ডিং প্রকাশিত হয়েছে। এতে দেখা যায়, বিভিন্ন সময় দেওয়া সাক্ষাৎকারে অন্য নারীদের পাশাপাশি মেয়ে ইভাঙ্কাকে নিয়েও মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এ রিপাবলিকান প্রার্থী বেফাঁস মন্তব্য করেছেন।

রেডিও ব্যক্তিত্ব হাওয়ার্ড স্টার্নকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে দেওয়া সাক্ষাৎকারগুলোর অডিও বিশ্লেষণ করার পর এ তথ্য উঠে এসেছে। এতে দেখা যাচ্ছে, সেখানে ট্রাম্প বারবার তার মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের দেহ নিয়ে সরস মন্তব্য করেছেন। এ ছাড়াও প্রকাশিত ভিডিওর মতো সাধারণভাবেই নারীদের নিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলেছেন তিনি।
 
ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপস্থিতিতে এক অনুষ্ঠানে হাওয়ার্ড স্টার্ন ট্রাম্পের মেয়ে সম্পর্কে বলেন, ইভাঙ্কা ট্রাম্প ইজ এ পিস অব অ্যাসস। ট্রাম্প উত্তরে বলেন, ইয়েস। ২০০৬ সালের অক্টোবরে এক সাক্ষাৎকারে হাওয়ার্ড স্টার্নকে ট্রাম্প বলেন, ইভাঙ্কা সব সময়ই খুবই যৌন আবেদনময়ী। সে প্রায় ৬ ফুট লম্বা এবং একজন অসাধারণ সুন্দরী। এর দুই বছর পর আরেক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প স্টার্নকে ইভাঙ্কা সম্পর্কে অশ্লীল ভাষায় প্রশংসা করারও অনুমতি দেন। এ ছাড়া নারীর বয়সভিত্তিক বৈশিষ্ট্য নিয়েও আলোচনা ছিল সাক্ষাৎকারগুলোর বিভিন্ন অংশে।
 
২০০৫ সালে নারীদের নিয়ে ট্রাম্পের আপত্তিকর মন্তব্যের রেকর্ডিং শুক্রবার প্রকাশ করে ওয়াশিংটন পোস্ট। এ নিয়ে নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় বইছে। অশ্লীল টেপ ফাঁস হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর চাপ বাড়ছে। কিন্তু ট্রাম্প জানান কখনোই তিনি নির্বাচন থেকে সরবেন না। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, সংবাদমাধ্যম ও প্রাতিষ্ঠানিক রাজনৈতিক শক্তি আমাকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দিতে চায়। কিন্তু আমি কখনোই এ লড়াই থেকে সরব না।
 
ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিজের ঘর থেকেও তার সমালোচনা হয়েছে। স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমার স্বামী যা বলেছেন তা গ্রহণযোগ্য নয়। এটা আমার জন্যও আক্রমণাত্মক। তবে আশা করি, আমেরিকার জনগণ তাকে ক্ষমা করবে। মেলানিয়া বলেন, আমি যে মানুষটাকে চিনি ওই মন্তব্যগুলো তার সঙ্গে মানায় না। তার একজন নেতা হওয়ার মতো হৃদয় ও মন আছে। আমি আশা করি, মানুষ তাকে ক্ষমা করবে, যেমন আমি করেছি এবং আমাদের দেশ ও বিশ্বকে অন্য যেসব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় মোকাবিলা করতে হচ্ছে সেগুলোর দিকে মনোযোগ দেবে।

 


মন্তব্য