kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ২০১৬

দ্বিতীয় বিতর্কেও জিতলেন হিলারি

সাবেদ সাথী, নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি    

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৫৬



দ্বিতীয় বিতর্কেও জিতলেন হিলারি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে দুই প্রার্থীর দ্বিতীয় দফা বিতর্কেও ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের কাছে ধরাশায়ী হলেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রথম বিতর্কের মতো অতোটা নৈপুণ্য দেখাতে পারেননি হিলারি।

অন্যদিকে জয় না পেলেও ধারণার চেয়ে বেশি সাফল্য পেয়েছেন ট্রাম্প। স্থানীয় সময় রবিবার মিসৌরির সেন্ট লুইস ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটিতে এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

দ্বিতীয় দফায় প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে মুখোমুখি হওয়ার পর হিলারি ক্লিনটন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প পররাষ্ট্রনীতি উপস্থাপনের চেয়ে একে অপরকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেই বেশি কথা বলেছেন। বিতর্কে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ই-মেইল কেলেঙ্কারির জন্য হিলারির কারাগারে থাকা উচিত। নির্বাচনে বিজয়ী হলে তিনি হিলারির বিষয়ে তদন্ত চালাতে একজন স্পেশাল প্রসিকিউটর নিয়োগ দেবেন। ট্রাম্পের এমন মন্তব্যের জবাবে হিলারি বলেন, ট্রাম্প যা বলেছেন সেটা একেবারেই মিথ্যা। এতে আমি বিস্মিত হইনি। এটা বরং খুবই ভালো হয়েছে যে, ট্রাম্পের মতো একজন বদমেজাজি লোক আমাদের দেশের সর্বময় কর্তা হতে পারেন না। হিলারির এমন বক্তব্যের মাঝপথেই ফের হিলারিকে জেলে পাঠানো উচিত বলে মন্তব্য করেন ট্রাম্প। বিতর্ক চলার সময় ট্রাম্পকে ২০০৫ সালে এক অডিও সাক্ষাৎকারে নারীবিদ্বেষী মন্তব্য করার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়।

আত্মপক্ষ সমর্থন করে ট্রাম্প উল্টো তীব্র আক্রমণ করেন হিলারি দম্পতিকে। নারীদের সঙ্গে নিজের যে কোনো ধরনের যৌন অসদাচরণের কথা অস্বীকার করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। রিপাবলিকান দলীয় এ প্রার্থী বলেন, ২০০৫ সালের অশালীন মন্তব্য নিয়ে তিনি গর্বিত নন। তবে রাজনীতির ইতিহাসে বিল ক্লিনটন সবচেয়ে বেশি নারী নির্যাতন চালিয়েছেন। যৌন নিপীড়নের ঘটনায় বিল ক্লিনটনের বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। রবিবার এ বিতর্কের শেষ পর্যন্ত কোন প্রার্থী জয়ী হয়েছেন- সে ব্যাপারে জরিপ পরিচালনা করে ইউগভ ও সিএনএন/ওআরসি। অনলাইনে ৮১২ জন রেজিস্ট্রারকৃত ভোটারের (যারা হিলারি-ট্রাম্পের বিতর্ক দেখেছেন) সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে ইউগভের জরিপটি চালানো হয়েছে। আর টেলিফোন ও সেলফোনে ৫৩৭ জন ভোটারের সাক্ষাৎকার নিয়ে আলাদা আরেকটি জরিপ চালায় সিএনএন/ওআরসি।

ইউগভের অনলাইন জরিপে দেখা যায়, রেজিস্ট্রারকৃত ভোটারদের দৃষ্টিতে দ্বিতীয় দিনের বিতর্কে অল্পের জন্যই জয় পেয়েছেন হিলারি। ৪৭ শতাংশ ভোটার মনে করেন হিলারিই ভালো করেছেন। আর ৪২ শতাংশ ভোটার মনে করেন ট্রাম্প বিতর্কে এগিয়ে ছিলেন। তবে ১২ শতাংশ মনে করছেন তারা দুইজনই সমান সমান লড়াই করেছেন। ইউগভ যেসব ভোটারদের মধ্যে জরিপ পরিচালনা করেছে তাদের বেশিরভাগই মনে করছে হিলারি ক্লিনটন বেশ ভালোভাবে প্রস্তুত ছিলেন, বুদ্ধিদীপ্ত ছিলেন এবং আরও বেশি প্রেসিডেন্টসূলভ আচরণ করেছেন। অন্যদিকে ট্রাম্প কেবল নেতিবাচক হওয়া ও ঘন ঘন প্রতিদ্বন্দ্বীকে থামিয়ে দেওয়ার কারণে এগিয়েছেন।

অবশ্য সিএনএন/ওআরসির জরিপে বলা হয়েছে, এবারের বিতর্কেও হিলারি বেশ ভালো ব্যবধানেই জয়ী হয়েছেন। জরিপ অনুযায়ী, ৫৭ শতাংশ মনে করেন, হিলারি জয়ী হয়েছেন। ৩৪ শতাংশ মনে করেন, ট্রাম্প জয়ী হয়েছেন। তবে সিএনএন বলছে, প্রথম বিতর্কের তুলনায় দ্বিতীয় বিতর্কে হিলারি ভালো নৈপুণ্য দেখাতে পারেননি। অন্যদিকে দ্বিতীয় বিতর্কে ধারণার চেয়েও ভালো করেছেন ট্রাম্প। সিএনএন/ওআরসির জরিপ অনুযায়ী, প্রথম বিতর্কেও হিলারি জয়ী হয়েছিলেন। তখন ৬২ শতাংশ ভোটার তাকে জয়ী বলে উল্লেখ করেছিল। আর মাত্র ২৭ শতাংশ ভোটার জানিয়েছিল ট্রাম্প জয়ী হয়েছেন।

 


মন্তব্য