kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ম্যানসিটি গার্দিওলার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ : পুয়োল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৪১



ম্যানসিটি গার্দিওলার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ : পুয়োল

ম্যানচেস্টার সিটির দায়িত্ব গ্রহন গার্দিওলার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন বার্সেলোনার সাবেক অধিনায়ক কার্লেস পুয়োল। ২০০৯ থেকে ২০১১ সার পর্যন্ত ক্যাম্প ন্যুতে গার্দিওলার অধিনে থেকে চারটি সফল মৌসুম উপভোগ করেছেন পুয়োল।

এ সময় লা লিগার তিনটি ও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা লাভ করে কাতালান ক্লাব।
এরপর বার্সা ছেড়ে বায়ার্ন মিউনিখে গিয়েও দারুনভাবে সফল হয়েছেন গার্দিওলা। সেখানে অবস্থান কালীন তিনটি মৌসুমের বুন্দেস লিগার সবগুলো শিরোপা জয় করেছেন তিনি। যদিও ইউরো মঞ্চের শিরোপা জয় করা হয়নি জার্মান ক্লাবটির।
এখন ম্যানচেস্টার সিটিতে এসে দুর্দান্ত একটি সুচনা উপহার দিয়েছেন গার্দিওলা। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় প্রথম ১০ ম্যাচের সবকটিতেই জয়লাভ করেছে তার দলটি। এরপর অবশ্য ভাটা পড়ে অগ্রযাত্রায়। গত সপ্তায় সেল্টিকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ম্যাচে ৩-৩ গোলে ড্র করার পর রোববার প্রিমিয়ার লীগের এ্যাওয়ে ম্যাচে টোটেনহ্যামের কাছে ২-০ গোলে হেরে গেছে সিটিজেনরা।
পুয়োলের মতে স্পেন ও জার্মানিতে কর্তৃত্ব বজায় রাখার পর প্রিমিয়ার লীগে এসে গার্দিওলার সফলতায় ভাটা পড়েছে। তবে এটিও বলেছেন যে তিনি ইংলিশ ফুটবলের সংস্কৃতিতেই একটা পরিবর্তনের ছোঁয়া দিয়েছেন।
পুয়ল বলেন, ‘এটি গার্দিওরার জন্য এ যাবৎকালের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। তবে আমার মতে তিনি ইংল্যান্ডের ফুটবলে একটি পরিবর্তন আনতে পারবেন। বিপুল সংখ্যক মানুষের অভিমত অন্যান্য দেশের চেয়ে ইংল্যান্ডের ফুটবলে ভিন্নতা রয়েছে। তবে তিনি যে পন্থায় কাজ করছেন এবং খেলোয়াড়দেরকে যেভাবে চাপের মধ্যে রাখেন, তাতে এখানকার খেলার মধ্যে কিছুটা হলেও পরিবর্তন আসবে। তার সামনে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে ফুটবলের স্টাইলে পরিবর্তন করা।
গার্দিওলা গোড়া থেকেই বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে খেলা শুরু করতে চান এবং তা গোল রক্ষক থেকেই। তার মানে এই নয় যে তিনি লম্বা পাসের খেলা খেলতে চান। যেমনটি হযেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে। ম্যাচের একমাত্র গোলটি হয়েছে মাত্র তিন টাচে। তবে এটাই টোটাল স্টাইল। তিনি খেলা চালান খেলোয়াড়দের পজিশনের উপর নির্ভর করে এবং সেটি শুরু হয় একদম পেছন থেকেই।
খুব দ্রুত দলের মধ্যে তার প্রভাব লক্ষ্য করেছি আমি। তিনি খুবই ভাল করছেন। তার ধারনা খুবই পরিস্কার এবং সেটি খেলোয়াড়দের মাধ্যমে তিনি তা বাস্তবায়নের চেস্টা করেন। আমি যাদের সঙ্গে কাজ করেছি তাদের মধ্যে তিনিই শ্রেষ্ঠ। তাকে ইংল্যান্ডে দেখতে পেয়ে আমি সন্তুস্ট। তিনি খেলোয়াড়দের প্রচুর চাপে রাখেন। তবে গার্দিওরার অধীনে খেলোয়াড়রা যথেষ্ঠ নির্ভার অনুভব করেন। এটি অনুধাবন করা বেশ কঠিন। এটিই ফুটবল। যা আমি উপভোগ করি। ’
গার্দিওলা মনে করেন সবারই উন্নতি করার সুযোগ আছে এবং শীর্ষ পর্যায়ে খেলতে পারে। সত্যি সত্যি তার অধীনে প্রত্যেক খেলোয়াড় উন্নতি করে। এটিই খেলোয়াড়দের উন্নতিতে অনুপ্রেরনা যোগায়। ’


মন্তব্য