kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পাক-ভারত সীমান্তে ড্রোন, উত্তেজনা অব্যাহত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:৩৬



পাক-ভারত সীমান্তে ড্রোন, উত্তেজনা অব্যাহত

ভারত-পাক সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত। বিএসএফ দাবি করেছে, কথিত সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর সীমান্তের খুব কাছ দিয়ে উড়তে দেখা গেছে পাক চালকবিহীন বিমান বা ড্রোনকে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এবিপির খবরে বলা হয়, দেশটির নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে দেশের পশ্চিম সীমান্তের পাশাপাশি বাংলাদেশ সীমান্তেও নিরাপত্তা ও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। খবরে বলা হয়, বাংলাদেশ থেকেও কোনো জঙ্গি যেন ভারতে ঢুকতে না পারে সে জন্য এই ব্যবস্থা। সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পরই পাকিস্তান সীমান্ত-লাগোয়া অঞ্চলে হামলা চালাতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। সে কারণেই সীমান্তের নিরাপত্তাকে বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

তারপরই পাক সীমান্ত জুড়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজায় বিএসএফ। এদিন বাংলাদেশ সীমান্তের নিরাপত্তা প্রক্রিয়া খতিয়ে দেখেন বাহিনীর শীর্ষ কর্তারা। বিএসএফ–এর ডিজি কে কে শর্মা বলেন, পশ্চিম সীমান্তে নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা ও সুরক্ষা বাহিনীকে হাই-অ্যালার্টে রাখা হয়েছে। শর্মা আরও বলেন, পাক সীমান্তে এখনও চরম উত্তেজনা রয়েছে। বিশেষ করে, নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর গোলাগুলি জারি রেখেছে পাকিস্তান। তিনি জানান, সেনাকে তারা সবরকম সাহায্য করছেন।

বিএসএফ প্রধান জানান, পাকিস্তানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সীমান্তের (আইবি) খুব কাছে পাক চালকহীন বিমানকে (ইউএভি) উড়তে দেখা গেছে। তিনি বলেন, আইবির প্রায় ১০০ মিটার দূরে ওই বিমানকে দেখা গিয়েছে। শর্মার মতে, ইউএভির মাধ্যমে হতে পারে ভারতের সামরিক প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইছে পাকিস্তান। যদিও, শর্মা জানিয়ে দেন, পাকিস্তানকে যে কোনো সময় জবাব দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে ভারতের। তার আশ্বাস, জঙ্গিদের কোনো দুরভিসন্ধিই সফল হতে দেবেন না তারা। পাশাপাশি, বাংলাদেশ সীমান্তেও নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। শর্মা বলেন, নতুন করে বাংলাদেশে কোনো জঙ্গি কার্যকলাপের খবর মেলেনি। যদিও, নিরাপত্তায় কোনো ছাড় দেওয়া হচ্ছে না।

 


মন্তব্য