kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মোদিকে কটুক্তি করে ফের বিতর্কের শীর্ষে মিয়াঁদাদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:৫৯



মোদিকে কটুক্তি করে ফের বিতর্কের শীর্ষে মিয়াঁদাদ

শালীনতার সীমা টপকে গেলেন অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটার জাভেদ মিয়াঁদাদ। নরেন্দ্র মোদিকে জঘন্য গালাগালি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্ম বৃত্তান্ত নিয়ে কটুক্তি করে ফের বিতর্কের শীর্ষে প্রাক্তন পাক অধিনায়ক।

নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতের অতর্কিত সেনা অভিযানের নিন্দায় মুখর হয়েছেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেট অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদাদ। কিন্তু সমালোচনা করার সময় অযাচিত সংযমের বেড়া ডিঙিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে কুত্‍‌সিত ভাষায় আক্রমণ করে বসলেন দাউদ ইব্রাহিমের বেয়াই।

দুর্মুখ হিসেবে বরাবরই তাঁর বদনাম। এবার পাক টিভি চ্যানেলে সাক্ষাত্‍কার দিতে গিয়ে ফের বিতর্ক উস্কে দিলেন মিয়াঁদাদ। চোস্ত পাঞ্জাবিতে ভারতের অতর্কিত সেনা অভিযানের নিন্দা করতে শুরু করে শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী মোদির সমালোচনায় নোংরা ভাষায় অপমানকর মন্তব্য করলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার। সাক্ষাত্‍কারের শুরুতে ভারতীয়দের সুখ্যাতি করেন তিনি। কিন্তু সেটা যে আসলে ব্যাঙ্গার্থে, তা বোঝা গেল খানিক পরে।

সাক্ষাত্‍কারের মাঝে হঠাত্‍ তিনি বলে বসেন, ‘এরপর রয়েছেন সেই নরেন্দ্র মোদি। ’ বলার সময় বিকৃত উচ্চারণে প্রধানমন্ত্রীর পদবিকে ‘মুডি’ বলেন তিনি। তারপর প্রধানমন্ত্রীকে ‘পচা ডিম’ বলে সম্বোধন করেন মিয়াঁদাদ। তারপরই তাঁর জন্ম বৃত্তান্ত সম্পর্কে অশালীন ইঙ্গিত করেন পাক ক্রীড়াবিদ।

উল্লেখ্য, ভারতে নরেন্দ্র মোদির নীতির সমালোচনা অনেকেই করেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে এযাবত এমন কুত্‍‌সিদ ভাষায় কেউ টিপ্পনি কাটেননি। মিয়াঁদাদের মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে বিসিসিআই সভাপতি তথা বিজেপি সাংসদ অনুরাগ ঠাকুর সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ক্রিকেট মাঠে ও রণাঙ্গনে ভারতের কাছে পাকিস্তানের পর পর পর্যুদস্ত হওয়া কিছুতেই হজম করতে পারছেন না প্রাক্তন পাক অধিনায়ক। তাঁর দাবি, সেই হতাশা থেকেই এমন কুরুচিকর মন্তব্য করেছেন মিয়াঁদাদ।

ঠাকুর বলেন, ‘১৯৬৫, ১৯৭১ ও কার্গিলের যুদ্ধে ভারতের তাণ্ডবের রেশ এখনও পাকিস্তানের মন থেকে মুছে যায়নি। মিয়াঁদাদের ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ইতিহাসে ভারতকে কখনও হারাতে না পারার হতাশা এখনও ওঁকে তাড়া করছে। দরকার পড়লে পাকিস্তানকে ফের ধরাশায়ী করতে ভারত তৈরি রয়েছে, তা সে ক্রিকেট মাঠেই হোক বা যুদ্ধের ময়দানে। ’

এদিকে নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করার পাশাপাশি সাক্ষাত্‍কারে মিয়াঁদাদ আরও জানিয়েছেন, ‘মোদি জানেন না উনি কাকে হুমকি দিচ্ছেন। ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জিততে পাকিস্তানের প্রত্যেক পুরুষ ও শিশু শহিদ হওয়ার জন্য প্রস্তুত রযেছে। সুযোগ পেলে ইটের জবাব আমরা পাটকেলে দেব। ’

এর পরেই অবশ্য মিয়াঁদাদের কথা মাঝপথে কেটে দেন পাকিস্তানি টিভি চ্যানেলের সঞ্চালক।

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য