kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিবিসি বাংলার খবর

পাকিস্তান কি ভারতে পাল্টা হামলা চালাবে?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:৩৬



পাকিস্তান কি ভারতে পাল্টা হামলা চালাবে?

কাশ্মীর নিয়ে ভারত পাকিস্তান উত্তেজনা এখন যেরকম তুঙ্গে, ভারতীয় হামলার পর সবার নজর এখন ইসলামাবাদের দিকে।
ভারতীয় হামলার জবাবে এখন কী করতে যাচ্ছে পাকিস্তান?
এ নিয়ে বিবিসি বাংলার মোয়াজ্জেম হোসেন কথা বলেছিলেন পাকিস্তানের একজন প্রতিরক্ষা বিশ্লেষক ড: আয়েশা সিদ্দিকার সঙ্গে।


তার কাছে শুরুতেই জানতে চাওয়া হয়েছিল, নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর কাল রাতে আসলে কী ঘটেছে, পাকিস্তানে বসে কি জানতে পারছেন তারা?
আয়েশা সিদ্দিকা বলছিলেন, "কোন কিছুই কিন্তু নিশ্চিত নয়। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী দাবি করছে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর গোলাগুলি হয়েছিল। ভারতীয় সেনাবাহিনীর ডাইরেক্টর অব মিলিটারি অপারেশন্স কিছু দাবি করেছেন, কিন্তু সেখানকার সাংবাদিকরা কিন্তু এসবের কিছুই নিশ্চিত করতে পারেন নি"।
"সুতরাং আমরা শুধু দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি বক্তব্যই জানতে পারছি। কিন্তু যেটা আমরা সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারি, তা হলো, উরিতে আক্রমণের একটা সমাপ্তি টানা ভারতের জন্য দরকার হয়ে পড়েছিল। কিন্তু এখন আমাদের দেখতে হবে এটাই সেই সমাপ্তি কিনা। এখন আমরা ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কের এক নতুন অধ্যায়ের জন্য অপেক্ষা করবো কিনা"।
পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী দাবি করছে, ভারতের এই সার্জিক্যাল হামলার দাবি আসলে মিডিয়ায় চমক সৃষ্টির চেষ্টা। আসলেই কি ভারত সেদেশের জনগণকে এবং মিডিয়াকে খুশি করার জন্য তারা দেখাতে চাইছে যে উরি হামলার একটা "শক্ত জবাব" তারা দিয়েছে?
"এরকম একটা সম্ভাবনা কিন্তু আছে"- বলছিলেন ড: আয়েশা সিদ্দিকা।
"কারণ দুই তরফেই বাকযুদ্ধটা এমন তীব্র পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, শুধু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে নয়, নিজ নিজ দেশের জনগণকে বুঝ দেয়ার জন্য তাদের লোক দেখানো কিছু একটা করে দেখাতে হবে। "
"সবচেয়ে দুঃখজনক ব্যাপারটা হচ্ছে, এই ঘটনার ব্যাপারে কোন তরফ থেকেই কোন বিশদ তথ্য কিন্তু আপনি পাচ্ছেন না। সেটা ভারতের দিক থেকেই হোক, বা পাকিস্তানের দিক থেকে হোক। ভারত পাকিস্তানের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর গোলাগুলি একটা নিয়মিত ঘটনা। এখন ভারত যে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছে বলে দাবি করছে, সেটা আসলে কি, তা তো আমরা জানি না"-বলছেন আয়েশা সিদ্দিকা।
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এই ঘটনার পর আগামীকাল তার মন্ত্রিসভার জরুরী বৈঠক ডেকেছেন।
ভারতের কথিত এই হামলার জবাবে পাকিস্তান এখন পাল্টা সামরিক হামলা চালাবে, সেরকম সম্ভাবনা আসলে কতোটা?
মিস সিদ্দিকা মনে করেন না সেরকম কোনও সম্ভাবনা আছে।
"পাকিস্তান যেভাবে এই হামলার ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে, তারা বলছে এটা আসলে কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর গোলাগুলি, কোন সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নয়। এ থেকে আমরা যেটা বুঝি, তা হলো, সেরকম গুরুতর কিছু ঘটেনি, যেটার জন্য তাদের পাল্টা সামরিক হামলা চালাতে হবে। সৌভাগ্যবশত, এক্ষেত্রে পাকিস্তানের দিক থেকে আমরা হয়তো খুব সংযত জবাবই দেখবো"।
উরি হামলায় ১৮ জন ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পর ভারত গত দুসপ্তাহ ধরে কূটনৈতিকভাবে পাকিস্তানকে কোনঠাসা করার চেষ্টা করেছে।
ইতোমধ্যে তারা ইসলামাবাদে সার্ক সম্মেলন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান এবং ভুটান।
ড: আয়েশা সিদ্দিকা বলছেন, এর পাল্টা জবাবে পাকিস্তান এখন চীন এবং রাশিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তুলতে চাইছে।
তাঁর মতে, ভারত পাকিস্তানের এই দ্বন্দ্ব তাই আর এখন কেবল দক্ষিণ এশিয়ায় সীমাবদ্ধ থাকছে না, আরও বৃহত্তর আন্তর্জাতিক পরিসরেও এ নিয়ে একটা কূটনৈতিক মেরুকরণ দেখা যাচ্ছে।


মন্তব্য