kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


হামলা হলে পাকিস্তানের পাশে থাকবে চীন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:৫৪



হামলা হলে পাকিস্তানের পাশে থাকবে চীন

সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে যখন সরব গোটা বিশ্ব, সে সময় পাকিস্তানের দিকে পূর্ণ সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দিল চীন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোনো বহিরাগত আক্রমণ হলে সাহায্যের আশ্বাস বার্তাও দেওয়া হয়েছে চীনের পক্ষ থেকে।

গত কয়েক দিন ধরে ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। কাশ্মীরের উরির সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার পর পাকিস্তানের ভূমিকা নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে আন্তর্জাতিক মহলে। যদিও চীন এ বিষয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি।

এরই মধ্যে আগ বাড়িয়ে পাকিস্তানের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনার কথা তুলে চীন যে বার্তা দিল, তা যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ। লাহোরে চীনের কনসাল জেনারেল ইউ বোরেনকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দেওয়া হয়েছে। এই বিবৃতিতে বোরেনের যে উদ্ধৃতি প্রকাশ করা হয়েছে তা হলো, কোনোরকম (বহিরাগত) হামলা হলে আমরা পাকিস্তানকে সব রকম সমর্থন দেব।

এখানেই শেষ নয়, কাশ্মীর ইস্যুতেও পাকিস্তানের অবস্থানকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন বোরেন। বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে আমরা পাকিস্তানের পাশে আছি এবং থাকব। নিরস্ত্র কাশ্মীরিদের দমন-পীড়নের এখনও কোনো বিচার হয়নি। কাশ্মীর ইস্যুর সমাধান হওয়া উচিত কাশ্মীরে বাসিন্দাদের ইচ্ছা মেনেই। পাকিস্তানি সংবাদ মাধ্যম সূ্ত্রে জানানো হয়েছে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ চীনা কূটনীতিবিদদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন। সেই আলোচনায় এই বার্তা দেওয়া হয়েছে বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে।

এদিকে, নয়া দিল্লি মনে করছে, আসলে ভারতীয় সেনা হামলা করতে পারে বলে আগাম আশঙ্কায় ভুগছে পাকিস্তান। তাই আগে ভাগেই গ্রামগুলো খালি করে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে যুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু করে দিতে চাইছে। চীন নিজে সরকারিভাবে এ নিয়ে কিছু বলেনি। কিন্তু চীনের কূটনৈতিক কর্তাকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তান পাল্টা চাপ তৈরি করে রাখছে ভারতের ওপর, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

 


মন্তব্য