kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দেশজুড়ে তোলপাড়

গোপন ভিডিও সরাতে ব্যর্থ হয়ে ইতালীয় তরুণীর আত্মহনন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:৩৮



গোপন ভিডিও সরাতে ব্যর্থ হয়ে ইতালীয় তরুণীর আত্মহনন

মেয়েটি চেয়েছিল সবার কাছ থেকে নিজেকে ভোলাতে, কিন্তু আজ তাকেই স্মরণ করা হচ্ছে ইতালিসহ বিশ্বজুড়ে।

ঘটনার শুরু প্রায় একবছর আগে।

৩১ বছর বয়সের তিজিয়ানা তার একটি সেক্স ভিডিও পাঠিয়েছিল তার সাবেক বয়ফ্রেন্ডসহ চারজনকে। কিন্তু তারা সেটিকে ইন্টারনেটে আপলোড করে। ফলে বছরজুড়ে ভিডিওটি সর্বত্র দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। প্রায় ১০ লাখেরও বেশি মানুষ সেটি দেখে। এতে তিজিয়ানা হয়ে ওঠে সবার কাছে ঠাট্টার পাত্র।

এ অবস্থা মেনে নিতে পারেনি তিজিয়ানা। সর্বাত্মক চেষ্টা চালায় সে ভিডিওটি বিভিন্ন সাইট থেকে সরিয়ে ফেলতে। এমনকি আদালতেরও দ্বারস্থ হয় সে। যদিও আদালত ইন্টারনেট থেকে ভিডিওটি সরিয়ে ফেলার আদেশ দেন। কিন্তু আইনি খরচ হিসেবে আদালত তাকে আদেশ করেন ২০ হাজার ইউরো প্রদানের। বিষয়টি ছিল তার জীবনের চূড়ান্ত অপমানের মতো।

ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে উঠলে নিজের চাকরিটি ছেড়ে দেন তিজিয়ানা। এরপর শহর ছেড়ে চলে যান তিনি। এমনকি নিজের নামও বদলে ফেলতে চেয়েছিলেন তিজিয়ানা। কিন্তু সমাজের নানা বঞ্চনায় শেষ পর্যন্ত নেপলসে তার এক আত্মীয়র বাসায় আত্মহত্যা করেন। এ আত্মহননের ঘটনা পুরো ইতালিজুড়ে সাড়া ফেলেছে। দেশটিতে তৈরি করেছে ক্ষোভ আর শোক। তার শেষকৃত্যানুষ্ঠান দেশটির টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

এদিকে, তিজিয়ানার আত্মহননের ঘটনায় আইনজীবীরা ওই চার ব্যক্তিকেও দায়ী করছেন। দেশটির প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত বলেছেন যে, এ রকম পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকারের আসলেও খুব কম করার থাকে। এটি আসলে একটি সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক লড়াই। নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে সরকার সবকিছুই করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মাত্তিও রেনজি। তিজিয়ানার পরিবারের দাবি, দেশের আইন যেন প্রমাণ করে যে তার মৃত্যু নিরর্থক ছিল না।
সূত্র : বিবিসি বাংলা


মন্তব্য