kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফোনে কথা বলায় মায়ের বকা, নিজেকে শেষ করে দিল কিশোরী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:১৭



ফোনে কথা বলায় মায়ের বকা, নিজেকে শেষ করে দিল কিশোরী

কিশোর প্রেমিকের সঙ্গে ফোনে কথার বলার সময় ধরা পড়েছিল মায়ের হাতে। বয়স কম বলে এখনই প্রেম করতে নিষেধ করেছিলেন মা।

দিয়েছিলেন ধমকও। আর এতেই অপমানিত বোধ করে নিজের ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হল ১৫ বছরের এক কিশোরী। গতকাল মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের মেলারদেবপল্লির লক্ষ্মীগুড়া কলোনিতে। মৃত ওই কিশোরীর নাম গায়েত্রী যাদব। সে স্থানীয় একটি স্কুলে ক্লাস টেনে পড়ত। এই ঘটনার পর ওই কিশোরীর মা মেলারদেবপল্লি থানায় প্রতিবেশী ওই কিশোরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
ঘটনাটির সূত্রপাত হয় গত মঙ্গলবার রাতে। প্রেমিকের সঙ্গে ফোনে লুকিয়ে কথা বলার সময় হাতেনাতে মায়ের কাছে ধরা পড়ে ওই কিশোরী। তার মা তাকে এত কম বয়সে সমবয়সী কিশোরের সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক তৈরি করার জন্য ধমক দেন। আর কখন কথা বলতেও নিষেধ করেন।  
তখনকার মতো বিষয়টি মিটে গেলেও পরেরদিন সকালে ফের প্রতিবেশী ওই প্রেমিকের সঙ্গে ফোন কথা বলছিল সে। আবারও মায়ের চোখে পড়ে। এবার শুনতে হয় কড়া ধমক। আর তাতেই ঘটে যায় এই মর্মান্তিক ঘটনা। মা বাড়ির অন্যদিকে পারিবারিক কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়লে নিজের ঘরে ঢুকে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে ওই কিশোরী।  
তবে, মেয়ের মৃত্যুর জন্য ওই প্রতিবেশী কিশোরকেই দায়ি করেছেন কিশোরীর মা। পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে মেয়েকে হয়রান করার জন্য ওই কিশোরকেই অভিযুক্ত করেছেন তিনি। আর এই বিষয়ে একটি মামলা রুজু করারও আবেদন করেছেন। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করলেও ওই কিশোরের পরিচয় প্রকাশ করেনি পুলিশ।


মন্তব্য