kalerkantho


৪৩ বছর পর জমানো শুক্রাণুই জট ছাড়াল জোড়া রেপ-মার্ডার কেসের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৩৫



৪৩ বছর পর জমানো শুক্রাণুই জট ছাড়াল জোড়া রেপ-মার্ডার কেসের

৪৩ বছর পর সন্দেহভাজন দুই খুনিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হল পুলিশ। একজনকে ক্যালিফোর্রনিয়া ও অপরজনকে ধরা হল ওকলাহামা থেকে। এ ঘটনাটি ঘটে ১৯৭৩ সালের ১২ই নভেম্বর।

এতদিনে জানা গেল, ক্লাশ সেভেনের ওই দুই ছাত্রীর খুনি তাদেরই পরিচিত ছিল। শপিং মলে বেড়াতে যাবে বলে দুজনে বেড়িয়েছিল বাড়ি থেকে। তারপর আর ফেরেনি তারা। এরপর প্রায় ঘন্টা কুড়ি পরে ওই দুই ছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তিন বছর ধরে চলে জিঙ্গাসাবাদ। কিন্তু উপযুক্ত প্রমাণ মেলেনি কোনও। খুনিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এরপর প্রমাণের অভাবে কেস বন্ধ করে দেওয়া হয়।

অবশেষে 'উইথ এ বিট অফ ফ্রী টাইমের' সুযোগে ২০১৪ সালে তদন্তকারীরা ঠাণ্ডা ঘর থেকে বের করে আনে পুরানো ফাইল। এরপর ডিএনে টেস্টের মাধ্যমেই দুই রহস্যজনক খুনির তথ্য উঠে আসে পুলিশের হাতে। ভ্যালেরি জেনিসি লেন (১২), ডরিস কারেন ডেরিবেরির সন্দেহভাজন খুনির বয়স এখন ৬৫ বছর। ডেরিবেরির শরীর থেকে যে শুক্রানু উদ্ধার করে পুলিশ তা যত্ন করে রাখা ছিল ফরেনসিক ল্যাবে।

ডিএনে টেস্টে ধরা পড়ে ওই শুক্রানুর মালিক আসলে ডেরিবেরির খুড়তুতো ভাই ল্যারি ডন প্যাটারসন এবং উইলিয়াম লেওরর্ড হারববারের। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ওলিভহার্স্ট থেকে প্যাটারসনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ১৯৭৬ সালে একবার দুই মহিলাকে ধর্ষণ করার অপরাধে আর ২০০৬-তে যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছিল তাকে। হারবর্রকে তোলা হয় সিগন্যালে দাঁড়োনো গাড়ির ভিতর থেকে। দুজনেরই যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হবে বলেই অনুমান করছে পুলিশ। সূত্র: এই সময়


মন্তব্য