kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


৯/১১-র পর প্রথম প্রকাশ্যে এল প্রেসিডেন্ট বুশের প্রতিক্রিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:৪৫



৯/১১-র পর প্রথম প্রকাশ্যে এল প্রেসিডেন্ট বুশের প্রতিক্রিয়া

১৫ বছর আগের এই দিন। মাত্র ১০২ মিনিট।

আল কায়দার হামলায় মাটিতে গুড়িয়ে গিয়েছিল নিউ ইয়র্ক শহরের যমজ টাওয়ার। তার পর কেটে গেছে দেড় দশক। কিন্তু, ওই দিন এয়ার ফোর্স ওয়ানের বিমানে বসে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের প্রতিক্রিয়া এই প্রথম প্রকাশ্যে এল। জানা গেল, হামলার খবর শুনে প্রথম কী বলেছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

‘যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে। যারা এটা করেছে, তাদের খুঁজে বের করবই। তখন তারা আর আমাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে পছন্দ করবে না। কাউকে না কাউকে এর দাম চোকাতে হবেই। ’ নিজের প্রেস সেক্রেটারি আরি ফ্লাইশারকে একথা বলেছিলেন বুশ। ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনি ও অন্য সঙ্গীদের উদ্দেশে এই বার্তা দিয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট। প্রেসিডেনশিয়াল নোট টেকার হিসেবে সেদিন কাজ করেছিলেন ফ্লাইশার। সরকারি প্যাডে প্রেসিডেন্টের বার্তা লিখেছিলেন তিনি। ৯/১১-র স্মৃতিতে এই ছয় পাতার সেই বার্তা আজ প্রকাশ করেন আরি ফ্লাইশার।

এই ঘটনার ৯ দিন বাদে আল কায়দা তথা বিশ্বসন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিলেন জর্জ ডব্লিউ বুশ। যদিও প্রায় ৩ হাজার মানুষের এত কম সময়ে যুদ্ধ ঘোষণা নিয়ে বুশের সিদ্ধান্তকে অনেকেই ভালো চোখে দেখেননি।

দেড় দশক আগে এই দিনে ফ্লোরিডার একটি প্রাইমারি স্কুলে গিয়েছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বুশ। প্রেসিডেন্টের সঙ্গী ছিলেন প্রেস সেক্রেটারি ফ্লাইশার। স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপের পরই প্রেসিডেন্টকে প্রথম টাওয়ার ভেঙে পড়ার খবর দেওয়া হয়। দ্বিতীয় টাওয়ার ভাঙার নোট যখন হাতে পান, তখন বুশ স্কুল পড়ুয়া শিশুদের একটি বই পড়ে শোনাচ্ছিলেন। যমজ টাওয়ারের ভেঙে পড়ার খবর পেয়েও বই পড়া থামাননি তৎকালীন প্রেসিডেন্ট। এর জন্য বহুবার সমালোচিত হয়েছেন তিনি। যদিও প্রাক্তন প্রেস সেক্রেটারি ফ্লাইশারের দাবি, প্রেসিডেন্টকে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া না দিতে তিনি-ই পরামর্শ দিয়েছিলেন।

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য