kalerkantho


বিধ্বস্ত পালমিরায় মিলল গলাকাটা লাশের ভিড়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:৩০



বিধ্বস্ত পালমিরায় মিলল গলাকাটা লাশের ভিড়

কে বলবে শহরটা পৃথিবীর অন্যতম প্রাচীন। নিওলিথিক যুগের সাক্ষ্য বহন করে। সিরিয়ার প্রাচীনতম শহর, যার পরতে পরতে কয়েক হাজার বছর আগের শিল্পের অনবদ্য নিদর্শন। শহরটার নাম পালমিরা। সেই পালমিরাই এখন আস্ত কবরস্থান। মাটি খুঁড়লই বেরচ্ছে মানুষের হাড়গোড়। দেহগুলির মাথা নেই। কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএস শিরশ্ছেদ করে দেহ পুঁতে দিয়েছে যেখানে সেখানে।

কয়েক দিন আগেই আইএসআইএস-কে যুদ্ধে হারিয়ে পালমিরা দখলে নিয়েছে সিরিয়ার সেনা। দীর্ঘ এক বছর শহরটি ছিল আইএসআইএস-এর দখলে। পালমিরার বহু প্রাচীন শিল্পকার্য ধ্বংস করে দিয়েছে আইএসআইএস। এই এক বছরে শহরটিতে শিল্পের যেমন হত্যা হয়েছে যথেচ্ছ, তেমনই চলেছে রক্তলীলাও। পালমিরায় মহিলা-শিশু-সহ কয়েক হাজার মানুষকে খুন করেছে আইএসআইএস। পালমিরা দখল নেওয়ার পর দেখা যাচ্ছে, ছবির মতো সুন্দর শহরটি এখন কবরস্থান। যেখানে সেখানে মিলছে গণকবর।

সিরিয়ার সরকার সূত্রের খবর, শিশু ও মহিলা মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত ৪০টি দেহ উদ্ধার হয়েছে মাটির তলায়। প্রত্যেকটি দেহই মুণ্ডহীন। ২০১৫-র মে মাসে পালমিরার দখল নিয়েছিল আইএসআইএস। দখল নেওয়ার পরের দিন থেকেই শুরু করে নরহত্যা। মাত্র দু'দিনে ৪০০ মানুষের শিরশ্ছেদ করা হয়। তাদের মধ্যে বেশির ভাগই ছিল শিশু ও মহিলা। সিরিয়ার পর্যটনের সবচেয়ে আকর্ষণীয় শহরটি আপাতত পরিষ্কারের কাজ করছে বাসার আল আসাদের বাহিনী। রুশ সেনা বাহিনীর সাহায্যে শহরের ছড়িয়ে থাকা প্রায় ৩ হাজার ল্যান্ডমাইন নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

সূত্র: এই সময়


মন্তব্য