kalerkantho


সেই বিমান ছিনতাইকারীর আত্মসমর্পণ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ মার্চ, ২০১৬ ২১:১২



সেই বিমান ছিনতাইকারীর আত্মসমর্পণ

মিশরীয় বিমান ছিনতাইকারী সাইফ এলদিন মুস্তফার আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে অবশেষে বিমান ছিনতাই নাটকের অবসান ঘটেছে। ‘বোমার ভয় দেখিয়ে’ বিমানটি ছিনতাইয়ের ছয় ঘণ্টা পর সাইপ্রাসের এক বিমানবন্দরে আত্মসমর্পণ করেন সেই ছিনতাইকারী। সাইপ্রাসের টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায়, আত্মসমর্পণের পর বিমান থেকে দুই হাত উঁচু করে বের হয়ে আসেন ছিনতাইকারী সাইফ। সেই সাথে সব জিম্মিরাও মুক্ত হন।

ওই বিমানের দেড় শতাধিক আরোহীর অধিকাংশকে আগেই ছেড়ে দিয়েছিলেন সেই ছিনতাইকারী। আত্মসমর্পণের পরপরই সাইপ্রাসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক টুইটে বলেন, 'ছিনতাই সঙ্কটের অবসান ঘটেছে। ' স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছিল, ছিনতাইকারী সাইফ একজন মিশরীয় নাগরিক। তিনি সাইপ্রাসে বসবাসকারী তার সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলেন।

এর আগে বিবিসির খবরে বলা হয়, বিমানটি আলেকজান্দ্রিয়া থেকে কায়রো যাওয়ার পথে একজন সশস্ত্র ছিনতাইকারী ইজিপ্টএয়ারের আভ্যন্তরীণ রুটের ফ্লাইটটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়।

ইজিপ্ট এয়ার জানিয়েছে, বিমান ছিনতাইকারীর সঙ্গে দর কষাকষির পরে এমএস১৮১ ফ্লাইটের চার জন বিদেশি যাত্রী ও ক্রু মেম্বাররা ছাড়া প্রথমে সবাইকেই ছেড়ে দেয়া হয়। বিবিসি ইজিপ্ট এয়ারের বরাত দিয়ে জানায় মিশর থেকে ৮১ জন আরোহীসহ ছিনতাই হওয়া বিমানটি সাইপ্রাসের লারনাকা বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

তবে রয়টার্স জানায়, ক্রু ও যাত্রী মিলিয়ে সেখানে ৬৭ জন ছিলেন।

বিবিসি জানায়, সাইফের ইচ্ছা অনুযায়ী পরে তার স্ত্রীকে বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি বিমানবন্দরের অদূরেই একটি গ্রামে বাস করেন।


মন্তব্য