kalerkantho


৩৪ বছর পর জেগে উঠল নদীর পানিতে ডুবে যাওয়া মন্দির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ মার্চ, ২০১৬ ১৭:১১



৩৪ বছর পর জেগে উঠল নদীর পানিতে ডুবে যাওয়া মন্দির

প্রায় ৩৪ বছর পর নদীর পানিতে তলিয়ে যাওয়া প্রায় ১২টি মন্দির ফের জেগে উঠেছে। এটা কোনও অলৌকিক  ঘটনা নয়। ভারতে মহারাষ্ট্রর নাসিকে তীব্র খরায় গোদাবরী নদীর পানি শুকিয়ে যাওয়ায় চান্দোরি গ্রামের ওই মন্দিরগুলি জেগে উঠেছে।

গ্রামের প্রবীণ বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ১৯৮২-তেও এই ঘটনা ঘটেছিল। সেবারও তীব্র খরায় শুকিয়ে গিয়েছিল গোদাবরী নদীর পানি। ইতিমধ্যে মন্দিরে বিগ্রহগুলির পুজো-অর্চনা শুরু করে দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

গোদাবরী নদীর ওপর ১৯০৭-এ নান্দুর মধ্যমেশ্বর বাঁধ গড়ে ওঠার পরই ত্রয়োদশ শতকের ওই মন্দিরগুলি ডুবে গিয়েছিল।

গ্রামের এক পুরোহিত মুলে বলেছেন, এই গ্রাম কয়েক হাজার বছরের পুরানো। প্রাচীনকালে এর নাম ছিল চন্দ্রাবতী, বর্তমানে গ্রামের নাম চান্দোরি। এই জায়গায় ১২টি মন্দিরে শিবলিঙ্গের পূজা ভগবান রামের আমল থেকে হয়ে আসছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

গ্রামবাসীরা চাইছেন, মন্দির বিগ্রহগুলিকে যেন ঐতিহাসিক গুরুত্বের বিচারে সংগ্রহশালায় রাখা হয়।

উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রের মারাঠাওয়াড়া অঞ্চলে তীব্র খরা চলছে। ফসল নষ্ট হওয়ায় ঋণ শোধ করতে না পেরে প্রায় ২০০ কৃষক আত্মঘাতী হয়েছেন বলে রাজ্য সরকারের রিপোর্টে জানা গেছে। সূত্র: এপিবি

 

 


মন্তব্য