kalerkantho

সোমবার । ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ । ৩ মাঘ ১৪২৩। ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮।


ভারতে ক্রিকেট খেলা নিয়ে বচসা, পিটিয়ে মারা হলো চিকিৎসককে!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৫:০৪



ভারতে ক্রিকেট খেলা নিয়ে বচসা, পিটিয়ে মারা হলো চিকিৎসককে!

বিকেলবেলা কমপ্লেক্সের মাঠে ছোট বাচ্চারা একসঙ্গে ক্রিকেট খেলছিল। তার মধ্যে একজন একটি বল ছোড়ে। বল অসাবধানতাবশত মাঠের ধারে দাঁড়িয়ে থাকা এক কিশোরের গায়ে লাগে। এই সামান্য ঘটনা থেকে ঝামেলার সূত্রপাত।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাটি ভারতের সেই সময় ওই খুদে খেলোয়াড়ের (যে বল ছুড়েছিল) বাবা পঙ্কজ নারং সান্ধ্যভ্রমণে বেরিয়েছিলেন। পেশায় চিকিৎসক ওই ভদ্রলোকের কাছে বাইকে চড়ে পৌঁছে যায় আহত কিশোর এবং নাসির নামে তার এক সঙ্গী। সেখানে তারা ওই চিকিৎসকের সঙ্গে কথাকাটাকাটি করে। কিন্তু, পরিস্থিতি নিজেদের আয়ত্ত থেকে বেরিয়ে যাওয়ায়, সেখানে মোটরসাইকেল ফেলে রেখেই চলে আসে।

মনে করা হয়েছিল, এখানেই বোধহয় ঝামেলা মিটে যাবে। কিন্তু, তা হয়নি। খানিকক্ষণের মধ্যেই ওই জায়গায় ১২-১৪ জনের এক গুণ্ডাবাহিনী পৌঁছে যায়। তাঁরা সকলে মিলে ওই চিকিৎসককে বেদম মারতে থাকে। ব্যবহার করা হয় লোহার রড, লাঠি। স্থানীয় লোকজন ওই চিকিৎসককে উদ্ধার করার জন্য ছুটে এলেও, তাদেরও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

রাত ১২টা নাগাদ ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। তবে তার খানিক আগেই অভিযুক্তেরা ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়। জানা গেছে, স্থানীয় মানুষের সাহায্যেই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে মারা যান তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দুজনের নাম নাসির এবং দীপক। বাকি দুজনের নাম আমির। অভিযুক্তদের মধ্যে চারজন নাবালক। তারা প্রত্যেকেই বিকাশপুরী অঞ্চলের বাসিন্দা। বাকিদের খোঁজেও তল্লাশি চালানো হচ্ছে। তাদের সকলের বিরুদ্ধেই হত্যা, হত্যার চেষ্টা, অনধিকার প্রবেশ এবং বিক্ষোভ ছড়ানোর মামলা করা হয়েছে।


মন্তব্য