kalerkantho


সৌদিকে অস্ত্র না দিতে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের প্রতি অ্যামনেস্টির আহ্বান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মার্চ, ২০১৬ ১৯:০৯



সৌদিকে অস্ত্র না দিতে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের প্রতি অ্যামনেস্টির আহ্বান

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ইয়েমেনে বেসামরিক নাগরিকদের জীবন বাঁচাতে সৌদি আরবকে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধে ওয়াশিংটন ও লন্ডনকে আহবান জানিয়েছে। ইয়েমেনে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে একটি সামরিক জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছে সৌদি আরব।


ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন হস্তক্ষেপের এক বছর পূর্তিতে ‘ব্যাপক অস্ত্র সরবরাহ বেসামরিক প্রাণহানি ঘটাচ্ছে’ শিরোনামে মঙ্গলবার অ্যামনেস্টি এক বিবৃতি প্রকাশ করেছে। বিবৃতিতে মানবাধিকার সংগঠনটি ইয়েমেন সংঘাতে ব্যবহারের জন্য সব ধরনের অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করতে দুই পশ্চিমা শক্তি ও অন্যান্য দেশের প্রতি আহবান জানিয়েছে।
অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের আঞ্চলিক উপ-পরিচালক জেমস লিঞ্চ বলেন, সৌদি আরবের কাছে সরবরাহকৃত অস্ত্রগুলো ইয়েমেনে অপরাধ কর্মকান্ডে ব্যবহৃত হচ্ছে এমন তথ্য প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও রিয়াদের আন্তর্জাতিক অংশীদাররা সেখানে ব্যাপকভাবে অস্ত্র পাঠাচ্ছে এবং সংঘাতের আগুনে ঘি ঢালছে। এছাড়া সেখানে নতুন করে অস্ত্র সরবরাহ করা হলে তা গুরুতর সংঘাতে ব্যবহৃত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।
অ্যামনেস্টি বলেছে, সৌদি আরবের বৃহত্তম অস্ত্র সরবরাহকারী ওয়াশিংটন ও লন্ডন অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে যার গুরুতর অপব্যবহার হচ্ছে এবং এতে অনাকাক্সিক্ষতভাবে মানবিক সংকট বাড়াচ্ছে।
সংগঠনটি বলেছে, সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে সৌদি জোটের কমপক্ষে ৩২ টি বিমান হামলার তথ্য তাদের কাছে আছে যেখানে দেখা গেছে বিমান হামলা চালানোর সময় আন্তর্জাতিক মানবিক আইন লংঘন করা হয়েছে। ওই বিমান হামলায় ১২৭ শিশুসহ কমপক্ষে ৩৬১ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে।
অ্যামনেস্টি জোটের বিরুদ্ধে হামলার সময় গুচ্ছ বোমা ও নিষিদ্ধ অস্ত্র ব্যবহারের অভিযোগ করেছে। সংগঠনটি বলেছে, এসব অস্ত্র ব্যবহারের ফলে বেসামরিক প্রাণহানি ও অঙ্গহানি হচ্ছে।
অ্যামনেস্টি জানায়, ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহী ও তাদের মিত্র সাবেক প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহর অনুগত বাহিনীর প্রতি অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে গত বছরের এপ্রিলে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব ২২১৬ গৃহীত হয়।
গত ২৫ ফেব্রুয়ারি ইউরোপীয় পার্লামেন্টে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার জন্য ইইউ’র প্রতি আহবান জানানো হয়।
নিরাপত্তা পরিষদের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার অনুপস্থিতিতে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ইয়েমেনে সংঘাতে লিপ্ত পক্ষগুলোর কাছে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অস্ত্র, গোলাবারুদ, সামরিক সরঞ্জামাদি ও প্রযুক্তি সরবরাহ না করতে সকল দেশের প্রতি আহবান জানিয়েছে।


মন্তব্য