kalerkantho


উতাহ রাজ্যে কঠিন পরীক্ষায় ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মার্চ, ২০১৬ ১৫:২৪



উতাহ রাজ্যে কঠিন পরীক্ষায় ট্রাম্প

উতাহ রাজ্যে কঠিন এক পরীক্ষায় পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প। দলের অন্য প্রতিদ্বন্দ্বী টেক্সাসের সিনেটর টেড ক্রুজের সঙ্গে তার তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলছে প্রাইমারি নির্বাচনের মাঝপথে এসে। গত মঙ্গলবার ইদাহোতে ট্রাম্পকে পরাজিত করেছেন টেড ক্রুজ। এ রাজ্যের মারমোন সম্প্রদায় ট্রাম্পকে বাদ দিয়ে বেছে নিয়েছেন ক্রুজকে। আগামী মঙ্গলবার ইউটা রাজ্যে রিপাবলিকানদের প্রাইমারি। সেখানেও রয়েছে মরমোনদের আধিপত্য।

তারা কি ট্রাম্পকে বেছে নেবেন, নাকি ইদাহো রাজ্যের মতো ক্রুজের দিকে ঝুঁকে পড়বেন তা নিয়ে বিশ্লেষকরা নানা মাত্রায় বিশ্লেষণ করছেন। যদি মরমোন সম্প্রদায় ক্রুজকে বেছে নেন তাহলে ট্রাম্প ফ্লোরিডার পর আরেকটি বড় ধাক্কা খাবেন। মরমোন হলো এমন একটি সম্প্রদায় যারা বহুপূর্বে বহুবিবাহ সমর্থন করতো। উতাহ রাজ্যে প্রায় ৩০ লাখ মানুষের বসবাস। তার মধ্যে দুই-তৃতীয়াংশই হলো মরমোন।

সাম্প্রতিক জরিপে দেখা গেছে, এ রাজ্যে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন ট্রাম্প। টেড ক্রুজ তার চেয়ে ৪০ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছেন। আর ১৮ পয়েন্টে এ রাজ্যে এগিয়ে আছেন জন কাসিচ। কিন্তু জরিপের ফল মাথায় নিচ্ছেন না ট্রাম্প। তিনি বিশ্বাস করেন, তিনি মনোনয়ন লাভের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডেলিগেট পাবেন। একই সঙ্গে তাকে প্রত্যাখ্যানকারীদের বিরুদ্ধে সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছেন। এখন পর্যন্ত তিনি প্রাইমারি ও ককাস মিলে ৬৭৩টি ডেলিগেট সংগ্রহ করতে পেরেছেন। দলীয় মনোনয়নের জন্য তাকে সংগ্রহ করতে হবে মোট ১২৩৭টি ডেলিগেট। এরই মধ্যে তিনি এর অর্ধেকের চেয়ে কিছু বেশি ডেলিগেট সংগ্রহ করতে পেরেছেন।

একই অবস্থান নিয়েছে লন্ডনের প্রভাবশালী ম্যাগাজিন দ্য ইকোনমিস্টের ইকোনমিক ইন্টেলিজেন্ট ইউনিট। ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে নিউ ইয়র্ক ও উতাহে। অবরোধ করে দেওয়া হয়েছে অ্যারিজোনার মহাসড়ক। এ অবস্থায় মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে কয়েকটি রাজ্যের প্রাইমারি অথবা ককাস নির্বাচন। তাতে ট্রাম্প কি করেন তা এখন দেখার পালা। অন্যদিকে গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত প্রাইমারি নির্বাচনে কমপক্ষে চারটি রাজ্যে জয় পেয়েছেন ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। তিনি দলের প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্সের চেয়ে অনেকটা এগিয়ে আছেন।

উল্লেখ্য, উতাহে অবস্থিত সল্ট লেক সিটিতে দ্য চার্চ অব জেসাস ক্রিস্ট অব লেটার ডে সেইন্টের সদর দপ্তর। তারা সাধারণত রাজনৈতিক কোনো প্রার্থীকে অনুমোদন দেয় না। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশ বন্ধের যে কথা বলেছেন রিপাবলিকান ট্রাম্প তাতে তারা একটি বিবৃতি দিয়েছেন। তাতে তারা বলেছে, তারা ধর্মীয় স্বাধীনতা সমর্থন করেন। ডেজার্ট নিউজ/কেএসএল জরিপে দেখা গেছে, যদি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী মনোনীত করা হয় তাহলে উতাহর ভোটাররা ৫০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো বেছে নেবেন ডেমোক্রেট প্রার্থীকে। চূড়ান্ত ভোটে তারা ডেমোক্রেট প্রার্থীকে ভোট দেবেন।

 


মন্তব্য