kalerkantho

সোমবার। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ । ১০ মাঘ ১৪২৩। ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৮।


তামিলনাড়ুর সমুদ্রে মিলল শতাব্দী প্রাচীন ডুবন্ত শহর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৬ ০১:৫৮



তামিলনাড়ুর সমুদ্রে মিলল শতাব্দী প্রাচীন ডুবন্ত শহর

সমু্দ্রের তলায় খোঁজ মিলল শতাধিক বছরের পুরনো এক শহরের। তামিলনাড়ুর মামাল্লাপুরমে সমুদ্রতলের প্রায় ২৭ ফুট নিচে ১২ বর্গকিলোমিটার জুড়ে ছড়ানো-ছিটনো কিছু ধ্বংসস্তুপের হদিশ পেয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

জিওলজিস্ট, আর্কিওলজিস্ট, ডুবুরি, ঐতিহাসিক মিলে ১০ জনের একটি বিশেষজ্ঞ দল এই ধ্বংসস্তুপের উপর গবেষণা চালাচ্ছেন।

২০০৪-এর সুনামির ঠিক আগে অনেকটা পিছিয়ে গিয়েছিল সমুদ্ররেখা। সেই সময় মামাল্লাপুরম সমুদ্রতটে উপস্থিত পর্যটকদের অনেকেই সমুদ্রের তলা থেকে উঁকি মারা গ্রানাইট বোল্ডারের লম্বা দেওয়াল দেখতে পেয়েছিলেন। তারপরই বিশাল ঢেউ এসে ভাসিয়ে নিয়ে যায় সবকিছু। ভয়াল সুনামির হাত এড়িয়ে যাঁরা বেঁচে ফিরেছিলেন, তাঁদের অনেকেই পরে সেই দেওয়ালের কথা জানিয়েছিলেন। সেই দেওয়াল আসলে সমুদ্রের তলায় হারিয়ে যাওয়া এক প্রাচীন শহরের ধ্বংসাবশেষ বলে জানতে পেরেছেন বিশেষজ্ঞরা। ধ্বংসাবশেষের বেশিরভাগই সমুদ্রের তলার কারেন্ট ও শ্যাওলার পুরু আস্তরণে নষ্ট হয়ে গেলেও, যতটা বোঝা যাচ্ছে, তাতে কয়েকটি বড় বাড়ি, মন্দির ও একটি বন্দর এলাকা চিহ্নিত করতে পেরেছেন আর্কিওলজিস্টরা।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ওসেনোগ্রাফির প্রধান রাজীব নিগম জানিয়েছেন যে ধ্বংসাবশেষ অন্তত ১১০০ থেকে ১৫০০ বছরের পুরনো বলে অনুমান করা হচ্ছে। বেশ কিছু ইঁটের নির্মাণ রয়েছে এই প্রাচীন শহরে। তা দেখেই ধ্বংসপ্রাপ্ত শহরটির বয়স বোঝার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। আজ থেকে ৩,৫০০ বছর আগে সমুদ্রের জলতল যে অনেকটাই নিচে ছিল সে কথা জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। গত ২,০০০ বছর ধরে প্রতি বছর গড়ে ১,২ মিলিমিটার করে উঁচু হচ্ছে সমুদ্র। ৯৫২ খ্রীষ্টাব্দে এক ভয়াল সুনামি আছড়ে পড়েছিল দক্ষিণ ভারতে। তার জেরেই এই প্রাচীন শহর সমুদ্রের নিচে হারিয়ে যায় বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সূত্র : এই সময়


মন্তব্য