kalerkantho


ভারত চ্যাম্পিয়ন হবে মনে করছেন টেন্ডুলকার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৪৩



ভারত চ্যাম্পিয়ন হবে মনে করছেন টেন্ডুলকার

খেলোয়াড়ী জীবনে ক্রিকেটের অনেক রেকর্ডই নিজের করে নিয়েছেন ভারতীয় আইকন শচিন টেন্ডুলকার। নিজ মাঠে ২০১১ সালে জিতেছেন ৫০ ওভারের ওয়ানডে বিশ্বকাপ। আগামীকাল নিজ মাঠে শুরু হচ্ছে টি-২০ বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসর। ক্রিকেট বোদ্ধাদের অনেকের মতেই এবার শিরোপা জয়ে ভারতই ফেবারিট। টেন্ডুলকারও তেমনটাই মনে করছেন। ভারতের বর্তমান দলটি সংক্ষিপ্ত ভার্সনের ক্রিকেটে রয়েছে দারুণ ফর্মে। ভারত- নিউজিল্যান্ড ম্যাচের মধ্য দিয়ে আগামীকাল শুরু হচ্ছে টি-২০ বিশ্বকাপের মূল পর্ব। মূল লড়াই শুরু হওয়ার আগে স্থানীয় একটি গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন টেন্ডুলকার। পাঠকদের উদ্দেশ্যে তার সাক্ষাৎকারের চুম্বক অংশ তুলে ধরা হলো।
প্রশ্ন: গত ওয়ানডে বিশ্বকাপের খেলা দেখতে অস্ট্রেলিয়া গিয়েছিলেন। এবার কোথায় যাবেন?
টেন্ডুলকার: আমার বন্ধু সৌরভ গাঙ্গুলি এখন বেঙ্গল ক্রিকেট এসাসিয়েশনের (ক্যাব) সভাপতি। তিনি আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ১৯ মার্চ কোলকাতা যাচ্ছি ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখতে।
প্রশ্ন: ‘গ্রুপ অব ডেথ’-এ রয়েছে নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ ও স্বাগতিক ভারত। কি হতে পারে?
টেন্ডুলকার : ভারতীয় দলের কনফিডেন্স লেবেলটা বেশ ভাল অবস্থায় আছে। তবে টি-২০ ম্যাচে সময় কম। একটা ভুলেই ম্যাচ শেষ হয়ে যেতে পারে। তাই প্রতি মুহূর্তেই সতর্ক থাকতে হবে।
প্রশ্ন: ডার্ক হর্স?
টেন্ডুলকার: নিউজিল্যান্ড। বেন্ডন ম্যাককালাম প্রথম বল থেকে মারার যে ক্রিকেট ওদের শিখিয়েছেন, উইলিয়ামসনরা সেই বিশেষ ধরনের ক্রিকেটটাই খেলে।
প্রশ্ন: পাকিস্তান দুর্বল ?
টেন্ডুলকার: কে বলেছে? বাংলাদেশে দলটা হয়তোবা আত্মবিশ্বাসের অভাবে ভুগছিল। তবে দেশে ফিরে দল গুছিয়ে নেয়ার সময় পেয়েছে। হাফিজ, আফ্রিদি, আমির, রিয়াজরা ভাল লড়াই করবে।
প্রশ্ন: ভারতের শক্তি?
টেন্ডুলকার: দলে কোন বাঁধা ধরা ব্যাটিং অর্ডার না থাকা। একই সঙ্গে দলে একাধিক ব্যাটিং-বোলিং অলরাউন্ডার থাকা।
প্রশ্ন: ২০০৭ আর এখনকার ধোনি?
টেন্ডুলকার: অনেক পরিণত। ইদানিং ওর ব্যাটে বল লাগলে যে শব্দটা হচ্ছে সেটা ফর্মে থাকার।
প্রশ্ন: ধোনি-রোহিত-বিরাট?
টেন্ডুলকার: তিনজনই বিশ্বমানের ব্যাটসম্যান। একে অন্যকে ছাপিয়ে যেতে চায়। ওদের দেখলে অনেক প্রতিপক্ষেরই চাপ বেড়ে যায়।
প্রশ্ন: যুবরাজ-রায়না-ধোনি?
টেন্ডুলকার: দুর্দান্ত যোদ্ধা। সহজে হার মানে না। আস্কিং রান রেট ১২, ১৪ যাই হোক না কেন ঠিক তুলে দেয়ার ক্ষমতা রাখে।
প্রশ্ন: ভারতীয় বোলিং?
টেন্ডুলকার: আশিষ নেহরা শুরুটা দারুণ করছে। সঙ্গে জসপ্রিত বুমরাহও ভাল করছে। আর তার ফসল তুলছে হার্ডিক পান্ডে। অশ্বিন , জাদেজারাও প্রয়োজনের সময় উইকেট নিয়ে দলকে সাহায্য করছে। এবার তিন পেসার দুই স্পিনার না তিন স্পিনার দুই পেসার-পরিস্থিতি প্রতিপক্ষ বুঝে সে সিদ্ধান্ত।
প্রশ্ন: দেশের মাটিতে বিশ্বকাপের সুবিধা?
টেন্ডুলকার: ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ হলেই মাঠে নেমে জিতে যাবে নাকি? ফোকাস আর প্রস্তুতি ঠিক রাখতে পারলে ফল আসবেই। ২০১১-তে আমরা সেটাই করেছিলাম।
প্রশ্ন: টিম ইন্ডিয়ার জন্য টিপস?
টেন্ডুলকার: দেশের জন্য মাঠে নামো।
প্রশ্ন: অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জেতা, তারপর শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজি জয়, এশিয়া কাপের শিরোপা- একটু কি বেশি পিকে উঠে গেল ভারত? এটা কি ভয়ের?
টেন্ডুলকার: নেতিবাচ চিন্তা দূরে ঠেলে ভাল এবং ইতিবাচ বিষয়ে ফোকাস করতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে।
প্রশ্ন: চার সেমিফাইনালিস্ট? ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড। অস্টেলিয়ার অনেক খেলোয়াড় আইপিএল খেলে। তাই এখানকার পরিবেশ তাদের জানা। এবি ডি ভিলিয়ার্সের দক্ষিণ আফ্রিকা বেশ ভারসাম্যপূর্ণ দল। ইংল্যান্ডের মরগান, বাটলার, হেলসদের সঙ্গে মঈন আলীও ম্যাচ উইনার।
প্রশ্ন: যুবরাজের প্রত্যাবর্তন?
টেন্ডুলকার: খারাপ সময় পিছনে ফেলে এসেছে যুবি। আত্মবিশ্বাস বাড়ায় এখন ব্যাটে-বলে টাইমিংটাও ঠিকমত হচ্ছে। সঙ্গে ফুট ওওয়ার্কটা বদলে নিয়ে যুব বিশ্বকাপে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের আভাস দিচ্ছে।
প্রশ্ন: টিম ইন্ডিয়ার এক্স ফ্যাক্টর?
টেন্ডুলকার: ধোনির দলে ১১ জনই এক্স ফ্যাক্টর।
প্রশ্ন: ভয়?
টেন্ডুলকার: ইংল্যান্ডকে।
প্রশ্ন: ছুপা রুস্তম?
টেন্ডুলকার: বুমরাহ। এ্যাকশনটা দেখলে বোঝা যায়না। খেলার পর ওর বলের জোর বোঝা যায়।
প্রশ্ন: ভারত চ্যাম্পিয়ন হবে?
টেন্ডুলকার: আমরা বিশ্বকাপ জিতেছিলাম ২ এপ্রিল। এবার ফাইনাল ৩ এপ্রিল। মনে হয় না সেবারের সঙ্গে এবারের ফলে কোন বদল হবে..।


মন্তব্য