kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন ২০১৬

নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশেও এগিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস

সুব্রত আচার্য্য, কলকাতা    

১২ মার্চ, ২০১৬ ১২:৪৮



নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশেও এগিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস

প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর এবার প্রধান তিন রাজনৈতিক দল বামফ্রন্ট, কংগ্রেস এবং বিজেপির চেয়েও নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশেও এগিয়ে গেল পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল কংগ্রেসের ইশতেহার প্রকাশের মধ্যরাতে বামফ্রন্টের সঙ্গে কংগ্রেসের জোট নিয়েও চুড়ান্ত বোঝাপড়া হয়নি।

গতকাল শুক্রবার গভীর রাতে কলকাতার একটি বামপন্থী সমর্থিত দৈনিক পত্রিকার কার্যালয়ে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব বামফ্রন্ট নেতাদের সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে কথা বলেছেন। তবে এখন পর্যন্ত যা খবর, তাতে আসন নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেনি কোনো পক্ষই।

এদিকে, শুক্রবার রাতে কালীঘাটে দলীয় কার্যালয়ে তৃণমূল প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় ১৪০ পৃষ্ঠার নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেন। বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি, উর্দু এবং আদিবাসী অলচিকি লিপি- এই পাঁচ ভাষায় ইশতেহার প্রকাশ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। হিন্দু-মুসলিম-শিখ-খ্রিষ্টানসহ সব জাতি ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এমন কি নতুন প্রজন্মকে সঙ্গে নিয়ে আগামী পাঁচ বছর কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন মমতা। গত পাঁচ বছরে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলার উন্নতিতে সরকার শতভাগ সফল উল্লেখ করে আগামী পাঁচ বছরেও তা বজায় রাখার প্রতিশ্রুতিও নিবাচর্নী ইশতেহারে দিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি।    

ইশতেহারে সিঙ্গুরের ক্ষতিগ্রস্ত জমিদাতাদের জমি ফেরানোসহ কারখানা করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। যদিও ২০১১ সালে ক্ষমতায় বসে প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিঙ্গুরের জমি উদ্ধারের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মমতার সরকার। কিন্তু এ নিয়ে আদালতে মামলা হওয়ার বিষয়টি বিচারাধীন হয়ে পড়ে। ফলে সিঙ্গুরের জমি এখনও ফেরাতে পারেননি মমতা।

তবে ২০১১ সালে প্রতিশ্রুতি না দেওয়া অনেক কিছুই গত সাড়ে চার বছরে তৃণমূল সরকার বাস্তবায়িত করেছে বলে দাবি করেন তৃণমূল নেত্রী। মমতা বলেন, "আমরা কাজ করি বেশি প্রতিশ্রুতি কম করি। প্রতিশ্রুতি না থাকলেও বহু কাজ হয়েছে গত সাড়ে চার বছরে। এর মধ্যে কন্যাশ্রী, সবুজ সাথী, খাদ্য সাথীর মতো প্রকল্পগুলোর নাম উল্লেখ করেন তিনি। মমতা এদিনও বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস  জোটকে উদ্দেশ্য করে তীব্র আক্রমণ করেন।  

এদিকে, বেশ কিছু আসনে বামফ্রন্টের প্রার্থী শক্তিশালী হলেও সেখানে কংগ্রেস কিংবা আর জেডির প্রার্থীকে সমর্থন করেছে বাম নেতৃত্ব। এর  প্রতিবাদে আজ শুক্রবার বিকেলে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে বামফ্রন্টের অফিসের সামনে একদল বাম সমর্থক বিক্ষোভ দেখান। বিক্ষোভের সময়ই অফিস থেকে বাসায় ফিরছিলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তিনি বিক্ষোভকারী বাম সমর্থকদের বলেন, "এভাবে বিক্ষোভ দেখিয়ে লাভ হবে না। এটা অন্য দলের অফিস নয়। আপনারা যে যার মতো বাড়ি ফিরে যান। "

রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে জোট গঠন করে এখনও চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা কিংবা নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করতে পারেনি কংগ্রেস, বামফ্রন্ট এমন কি বিজেপি। অথচ তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। শুক্রবার দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় হাওয়া ও কলকাতায় দুটি ধর্মীয় স্থানে গিয়ে দোয়া প্রার্থনার মাধ্যমে ভোটের প্রচারণা শুরু করেন। ছয় দফায় সাত দিনের ভোট প্রক্রিয়ার প্রথম দফা ভোটগ্রহণ হবে পশ্চিমবঙ্গের মাওবাদী এলাকায় আগামী ৪ এপ্রিল। নানা ধরনের প্রতিকূলতাকে পাশ কাটিয়ে কি করে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করা যায় সে পরিকল্পনাই চলছে সেখানে।

 


মন্তব্য