kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মধ্যরাতে তরুণীকে নির্বিঘ্নে বাড়ি পৌঁছে দিলেন ভবঘুরে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ মার্চ, ২০১৬ ১৬:১০



মধ্যরাতে তরুণীকে নির্বিঘ্নে বাড়ি পৌঁছে দিলেন ভবঘুরে

রাত অনেকটাই হয়ে গিয়েছিল। ইউস্টন স্টেশনে এসে নিকোল সেজবিয়ার নামে এক তরুণী দেখলেন শেষ ট্রেন চলে গেছে।

অত রাতে একা স্টেশনের বাইরে দাঁড়িয়ে প্রায় কেঁদে ফেলেছিলেন তিনি। ভেবেছিলেন স্টেশনের ভিতরে ঢুকতে পারলে অন্তত রাতটা পার হয়ে যাবে। কিন্তু, সে যাত্রায় ভাগ্যটা হয়তো খারাপ ছিল। স্টেশনের দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় প্ল্যাটফর্মের ভিতরেও ঢুকতে পারেননি তিনি। লন্ডন ভালো করে চেনেন না, তাই এত রাতে কোথায় যাবেন? কিছু হয়ে যাবে না তো? এইসব বিষয় ঘুরপাক খাচ্ছিল তাঁর মাথায়। ভাবতে ভাবতেই এক ব্যক্তি হাজির হন তাঁর সামনে। অনেক দিনের না কাটা দাড়ি। সোজা কথা প্রথম দর্শনে একেবারেই পছন্দ হবে না। নিজের পরিচয় দেন ভবঘুরে বলে। নাম মার্ক। তিনি নিকোলের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। একটি ক্যাফেতেও নিয়ে যান তাঁকে। তবে, নিকোলকে তিনি বলেন, ভোর হলেই ফিরে আসবেন।

নিকোল বিশ্বাস করেননি তাঁর কথা। ভেবেছিলেন, ভবঘুরে মানুষ, হয়তো ভুলভাল বলছেন। কিন্তু, পরের দিন ঠিক ভোর ৫টায় ফিরে আসেন মার্ক। তাঁকে দেখে নিজের চোখকেই যেন বিশ্বাস করতে পারেননি নিকোল। তিনি যাতে নির্বিঘ্নে বাড়ি পৌঁছাতে পারেন, তারও বন্দোবস্ত করে দেন মার্ক।     

পরে ফেসবুকে গোটা বিষয়টি পোস্ট করেন নিকোল। তিনি মার্কের সঙ্গে একটি সেলফিও পোস্টও করেন। লেখেন, মার্ক সত্যিই স্পেশাল। মার্ককে নিকোল জিজ্ঞাসা করেছিলেন, কেন তাঁকে সাহায্য করেছিলেন তিনি? উত্তরে মার্ক শুধু একটি কথাই বলেন, 'মেয়েকে সাবধানে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া একজন বাবার কর্তব্য। '

 


মন্তব্য