সকালে ঘুম থেকে জাগানোর কারণে গোটা-331820 | বিদেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২১ জিলহজ ১৪৩৭


সকালে ঘুম থেকে জাগানোর কারণে গোটা পরিবারকে গুলি করল কিশোর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৬ ২২:০২



সকালে ঘুম থেকে জাগানোর কারণে গোটা পরিবারকে গুলি করল কিশোর

বিছানা ছেড়ে উঠেই রাগে গজগজ করতে করতে গুলি চালায় ছেলেটা। মা-ঠাকুমা সবাই তখন তাক করা বন্দুকের নিশানায়। জোর করে ঘুম ভাঙাতে গিয়ে এমন বিপত্তি যে হবে, কেউ ভাবেননি। ভাববার কথাও নয় যদিও। ছেলের কাছে যে বন্দুক আছে, সেটাই বা তাঁরা জানবেন কী করে!

টেনেসির বাসিন্দা ষোল বছরের ওই কিশোরের পরিচয় যদিও মার্কিন পুলিশ ফাঁস করেনি। জানা গেছে, মঙ্গলবার ছেলেকে স্কুলে পাঠাতেই ঘুম থেকে তুলে দিয়েছিলেন মা শেরিল উইলিয়াম। তার আগে নাতির ঘুম ভাঙাতে ডাকাডাকি করছিলেন ঠাকুমা ইয়ার লাইন হিলও। এতেই মেজাজ বিগড়ায় ছেলের। অন্য ঘরে রাখা বন্দুক নিয়ে এসে, মা-ঠাকুমাকে সটান গুলি চালিয়ে দেয়। সে যে সবার অলক্ষ্যে বন্দুক কিনেছে, তা-ই এতদিন বাড়ির কেউ জানতেন না।

পুলিশ জানায়, জোর করে কিশোরের ঘুম ভাঙিয়ে দিলে, সে মেজাজ হারায়। এ নিয়ে তর্কাতর্কিতেও জড়িয়ে পড়ে। একফাঁকে ছুট্টে গিয়ে ৯ এমএম-এর বন্দুক নিয়ে এসে এলোপাথাড়ি গুলি চালায়।

দু-দুটো গুলি খেয়েছেন ওই ছাত্রের ঠাকুমা, ৬৭ বছরের বৃদ্ধা। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে ওই ছাত্রের ১২ বছরের ছোট বোন ও তাদের এক বোনঝি, যার বয়স মাত্র ৬। তাদের গা ছুঁয়ে গুলি বেরিয়ে গেছে বলে রক্ষা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রাগের মাথায় বিয়াল্লিশ বছরের মাকেও টার্গেট করেছিল ছেলে। কিন্তু, তিনি সোফার আড়ালে ঢুকে প্রাণ বাঁচান। ততক্ষণে অবশ্য পাশের আবাসনে বন্দুক ফেলে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত।

পরে যদিও সে পুলিশের হাতে সে ধরা পড়ে যায়। উদ্ধার করা হয় বন্দুকটিও। পুলিশ জানায়, রেললাইন ধরে হেঁটে পালানোর চেষ্টা করছিল সে।

সূত্র: এই সময়

মন্তব্য