বন্ধু হারাল বাংলাদেশ : প্রয়াত-331780 | বিদেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০১৬। ১৬ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৮ জিলহজ ১৪৩৭


বন্ধু হারাল বাংলাদেশ : প্রয়াত ফরওয়ার্ডব্লকের সম্পাদক অশোক ঘোষ

সুব্রত আচার্য্য, কলকাতা   

৩ মার্চ, ২০১৬ ১৯:০৮



বন্ধু হারাল বাংলাদেশ : প্রয়াত ফরওয়ার্ডব্লকের সম্পাদক অশোক ঘোষ

বাংলাদেশ আরো এক ভারতীয় অকৃত্রিম বন্ধুকে হারাল। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা ২৫ মিনিটে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে প্রয়াত হন ফরওযার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদক বর্ষীয়ান বাম নেতা অশোক ঘোষ। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন এই নেতা। প্রায় একমাস ধরে তিনি ওই হাসপাতালটিতে ভর্তিও ছিলেন। বুধবার সন্ধ্যার পর থেকেই তার অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। এমন কি বুধবার তাঁর মৃত্যুর গুঞ্জনও ছড়িয়ে পড়েছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিপিআইএম নেতাও ও বিধানসভার বিরোধী দল নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র অশোক ঘোষের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।
বর্ষীয়ান ওই বাম নেতার মৃত্যৃতে শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ছাড়াও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টচার্য।
কলকাতার পাশ্ববর্তী হুগলি জেলার চুঁচড়ার আরামবাগ এলাকায় ১৯২১ সালে ২ জুলাই জন্ম হয়েছিল তার। ১৯৩৯ সালে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর কাছ থেকেই রাজনৈতিক জীবনের শুরু হয়েছিল অশোক ঘোষের। সে বছরই ফরওয়ার্ড ব্লকের জন্ম হয়। ১৯৪৬ সালে রাজ্য সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন অশোক ঘোষ। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে রাজনৈতিক প্রচার প্রচারণা ছাড়াও নানা ভাবে অশোক ঘোষের অবদান সর্বজনন স্বীকৃত।
বাম আন্দোলনের ক্ষেত্রে তার সুপরামর্শ অনেক কাজে লেগেছে তাই তার এই প্রয়াণের মধ্যদিয়ে বামপন্থী আন্দোলনের ক্ষতি হলো বলে জানান বিমান বসু। বিরোধী দল নেতা সূর্যকান্ত মিশ্রও একইভাবে শোক প্রকাশ করে বলেন এই ক্ষতি অপুরণীয়।
রবিবার পুরুলিয়া নেতাজি আশ্রমে তার শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হবে। কলকাতার পিসহেভেনে তার মরদেহ রাখা থাকবে। শনিবার দুপুরের ফরওয়ার্ডব্লকের রাজ্য দফতর হেমন্তু বসু রোডের সর্বসাধারণের শ্রদ্ধার জন্য প্রয়াত নেতার মরদেহ রাখা হবে। সেখানেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ছাড়াও সব রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতারা শ্রদ্ধা জানাতে যাবেন।

মন্তব্য