ইরানের ভোটাররা ‘সঠিক ও যথার্থ পথ’-331012 | বিদেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


ইরানের ভোটাররা ‘সঠিক ও যথার্থ পথ’ বেছে নিয়েছে : রুহানি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৬ ২২:৩০



ইরানের ভোটাররা ‘সঠিক ও যথার্থ পথ’ বেছে নিয়েছে : রুহানি

ইরানের উদারপন্থী প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি মঙ্গলবার বলেছেন, তার দেশের ভোটাররা ‘সঠিক ও যথার্থ পথ’ বেছে নিয়েছে।
রুহানির মিত্ররা নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফলে গুরুত্বপূর্ণ বিজয় অর্জন করার পর হাসান রুহানি একথা বললেন।
ইরানের সংসদীয় নির্বাচনে রুহানির কূটনৈতিক নীতির বিরোধীতাকারীরা সংস্কারপন্থীদের কাছে পরাজিত হয়েছে। রক্ষণশীলরাও আসন হারিয়েছে।
রুহানি বলেন, ‘এদেশের মালিক হচ্ছে জনগণ... তারা এদেশের চলার পথ ও দিক নির্ধারণ করে থাকেন।’
তেহরানে এক অটো ইন্ডাস্ট্রি কনফারেন্সে তিনি বলেন, ‘আমি আমাদের বুদ্ধিমানও সাহসী জনগণকে ধন্যবাদ জানাই। তারা সম্মুখে কদম ফেলেছেন।’
ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে পশ্চিমা বিশ্বের সাথে দীর্ঘদিনের অচলাবস্থা নিরসনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘যদি এখনও কেউ কেউ মনে করে থাকেন যে আমাদের দেশের অন্যদের সঙ্গে সংঘাতে যাওয়া উচিৎ তাহলে তারা ২০১৩ সালের বার্তা উপলব্ধি করতে পারেননি।’ রুহানি বলেন, ‘সহযোগিতা হওয়া উচিত সবার স্বার্থ। আজ সংঘাতের যুগের অবসান ঘটেছে।’
ইরানের সংসদীয় নির্বাচনে ২৯০ আসনের মধ্যে কোন গোষ্ঠি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। তবে ফলাফল দেখে অনুমান করা যাচ্ছে রুহানি একটি কার্যোপযোগি সংখ্যাগষ্ঠিতা অর্জনে সক্ষম হবেন।
নির্বাচনে প্রধান রক্ষণশীলরা ১০৩, সংস্কারপন্থী ও উদারপন্থীরা ৯৫, স্বতন্ত্ররা ১৪ আসন পেয়েছে। সংখ্যালঘুরা পেয়েছে ৫ আসন এবং ৪ প্রার্থীর কোন একক দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা নেই।
প্রায় ৬৯টি আসনে কোন সুস্পষ্ট বিজয়ী নেই। এর মানে আগামী এপ্রিলে এখানে দ্বিতীয় দফা নির্বাচন হতে হবে।

মন্তব্য