মহিষাসুর বিতর্কের জের, ফোনে হুমকি-330970 | বিদেশ | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


মহিষাসুর বিতর্কের জের, ফোনে হুমকি সঞ্চালিকাকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৬ ২১:৪০



মহিষাসুর বিতর্কের জের, ফোনে হুমকি সঞ্চালিকাকে

অসহিষ্ণুতার আরও এক নজির! 'মহিষাসুর জয়ন্তী' পালন করলে কি দেশদ্রোহী হিসেবে বিবেচিত করা যায়? এই ছিল বিতর্কের বিষয়। আধ্যাত্মিকভাবেই তা বিশ্লেষণ করা হয় একটি জনপ্রিয় মালয়ালি টিভি নিউজ শো-তে। গত ২৫ ফেব্রুয়ারির ওই শো-এর পর ২ হাজারের উপর হুমকি এসএমএস ও ফোন পেলেন এশিয়ানেট নিউজ টিভি-র চিফ কো-অর্ডিনেটিং এডিটর সিন্ধু সুরিয়াকুমার।

সিন্ধু জানিয়েছেন, সেদিন তিনিই ওই ডিবেট শো সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন। শো শেষে তাঁর মোবাইলে শুরু হয় একের পর এক ফোন ও এসএমএস। অশ্লীল, অশ্রাব্য গালিগালাজ, প্রাণনাশের হুমকি। সব ক'টিই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের। তাদের বক্তব্য, ওই শো-এ দুর্গাকে 'যৌনকর্মী' বলা হয়েছে।

শো-এর ভিডিওতে দেখা গেছে, বিজেপি নেতা ভিভি রাজেশ দাবি করছেন, জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে মহিষাসুর জয়ন্তীর প্যামফ্লেট বিলি করা হয়েছিল। পরে সেগুলিই সংসদে মানব সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি পেশ করেন। সিন্ধুর অভিযোগের ভিত্তিতে তিরুঅনন্তপুরম থেকে ৫ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতরা প্রত্যেকেই বিজেপি, RSS ও নানা হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের কর্মী বলেই জানা গেছে।

অভিযুক্তদের মধ্যে একজন পুলিশকে জানিয়েছে, 'সঙ্গ ধ্বনি' নামে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে সে সুরিয়া কুমারের নম্বর পায়। তারপর সেই নম্বর সে শেয়ার করে দেয় বিভিন্ন গ্রুপে শেয়ার করে দেয়। এবং সবাইকে বলে, সুরিয়া কুমারকে হেনস্থা করতে। এই ব্যক্তি শ্রীরাম সেনা নামে একটি হিন্দুত্ব সংগঠনের সক্রিয় কর্মী বলে জানা গেছে।

সুরিয়াকুমার জানিয়েছেন, রাজ্য বিজেপি'র পক্ষে তাঁর অভিযোগের তদন্তের সাহায্য করার আশ্বাস মিলেছে।

সূত্র: এই সময়

মন্তব্য