kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

কৌতুক

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কৌতুক

অলংকরণ : মাসুম

♦ এক কৃষক তার গরুকে সারা দিন মাঠে চরে বেড়ানোর সুযোগ দিল। গোয়ালঘরে আর নিয়ে এলো না।

ভাবল, এতে অনেক দুধ পাওয়া যাবে। কিন্তু দিনের পর দিন কেটে গেল, গরু আর দুধ দেয় না। কারণটা কী?

উত্তর : মাঠে অবাধে চরে বেড়ানোর সুযোগ পেয়ে গরুটা নিজেকে এখন ঘোড়া ভাবে।

♦ দুই গরু গেছে ঘুরতে। প্রথম গরু একটু চিন্তায় আছে। কিন্তু দ্বিতীয় গরুটা আছে বেশ ফুরফুরে মেজাজে।

প্রথম গরু : শুনলাম এদিকে নাকি ম্যাড কাউ রোগটা ছড়িয়েছে।

দ্বিতীয় গরু : তো কী হয়েছে!

প্রথম গরু : তোর চিন্তা হচ্ছে না! অনেক গরুই নাকি এ রোগে আক্রান্ত হয়ে পাগল হয়ে যাচ্ছে।

দ্বিতীয় গরু : তাতে আমার কী! আমি একটা হাঁস। হাঁসের আবার ম্যাড কাউ রোগ হবে কেন! প্যাক প্যাক প্যাক।

প্রথম গরু আর এক মুহূর্তও দাঁড়াল না। ভোঁ দৌড়।

♦ প্রথম গরু: ব্যা...ব্যা...।

দ্বিতীয় গরু : কি রে, হাম্বা না ডেকে তুই ব্যা ব্যা করছিস কেন?

প্রথম গরু : আমি নতুন ভাষা শিখছি!

♦ মন্টু হাঁপাচ্ছে খুব। তা দেখে পল্টু বলল, কি রে, কী হয়েছে!

মন্টু : গরুর হাটে গিয়েছিলাম রে। গরুর তাড়া খেয়ে ছুটে এসেছি।

পল্টু : ঘটনাটা কী?

মন্টু : আর বলিস না। সে কি শিং তার! ইয়া বড় সাইজ। আমি লেজ ধরে একটু টান দিয়েছি, আর আমাকে লাগাল ছুট। ছুটছি তো ছুটছি। গরুটা আমাকে প্রায় ধরেই ফেলেছিল। তারপর আচমকা গরুটা স্লিপ কেটে পড়ে গেল রাস্তায়।

পল্টু : বলিস কী, ঘটনা ভয়াবহ। আমি হলে তো ভয়ে প্যান্ট ভিজিয়ে ফেলতাম।

মন্টু : হুম। তা গরুটা স্লিপ খেল কীসে বুঝতে পারিসনি?

—ইন্টারনেট থেকে আশিকুর রহমান চৌধুরী


মন্তব্য