kalerkantho

ছড়া

রূপকথা

হাসনাত আমজাদ

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রূপকথা

অলংকরণ : বিপ্লব

ছেলেবেলায় শুনেছি সে গল্প

পড়ছে মনে তার কিছু আজ অল্প।

 

সিন্দাবাদের বুড়ো

ঘাড়ের ওপর বসে সে খায় আস্ত মাছের মুড়ো।

চড়লে কারো ঘাড়ে

এই বসেছি নামব না আর, বলে তার হাত নাড়ে।

বিশালদেহি খোক্কস

মটকাবে ঘাড় রাজার ছেলের মানবে না সে তার পোষ।

রাজপ্রাসাদের কাছে

গভীর রাতে সদলবলে সে তো বসে আছে।

দৈত্য তো নয়, দানো 

বলছে মানুষ কোথায় আছে? জলদি ধরে আনো।

কোথায় মানুষ পাবে?

নইলে যাকে বলবে তাকে জ্যান্ত ধরে খাবে।  

 

গল্প এসব দাদির কাছে রাত্রি জেগে জেগে

শুনতে পেতাম, না শোনালে অমনি যেতাম রেগে।

বলত দাদি, ঘুমাবি না ওরে দস্যি ছেলে

কে শোনাবে গল্প তোদের আমরা চলে গেলে?

 

তোমরা যারা ছোট এখন, এসব কি আর শোনো?

হয়তো বা নেই এসব দিকে এখন কারুর মনও।

রূপকথা নেই, দাদি নানি আছে সবার ঘরে

কিন্তু তাদের কাছে কি কেউ বায়না এমন ধরে?


মন্তব্য