kalerkantho


টেলি ইনফো

এফটিটিএইচ

আনিকা জীনাত   

৭ নভেম্বর, ২০১৫ ০০:০০



এফটিটিএইচ

এফটিটিএইচের (FTTH) পূর্ণাঙ্গ মানে হলো 'ফাইবার টু দ্য হোম'। বাসাবাড়িতে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের সংযোগ যে তারের মাধ্যমে নেওয়া হয় সে তারটিকেই বলা হয় ফাইবার অপটিক কেব্‌ল।

আর ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের মাধ্যমে বাসাবাড়ি কিংবা ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে তথ্য আদান- প্রদানের এ কাজটি হয়ে থাকে এফটিটিএইচের মাধ্যমে। ইন্টারনেটের সংযোগ দেওয়ার জন্য দুই ধরনের তার ব্যবহৃত হতে পারে। ফাইবার অপটিক কেব্‌ল আর কপার কেব্‌ল।

তথ্য পরিবহন বা ফাইল আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে কপার কেব্‌লের ধারণক্ষমতা কিছুটা কম। তাই কপার কেব্‌ল অফিসের কাজে ব্যবহৃত হলেও রাজপথের কয়েক কিলোমিটারের পথ পাড়ি দেওয়া শুধু দ্রুতগতির ফাইবার অপটিক কেব্‌লের পক্ষেই সম্ভব। এ কারণেই কপার কেব্‌লের জায়গায় ফাইবার অপটিক কেব্‌ল ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। দ্রুত তথ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে ফাইবার অপটিক কেব্‌লের কোনো বিকল্প নেই। এই তারের মাধ্যমে প্রতি সেকেন্ডে এক শ মেগাবাইট তথ্য আদান-প্রদান করা সম্ভব।

এফটিটিএইচের মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলো অন্য কোনো মাধ্যমের সহায়তা ছাড়াই সরাসরি বাসাবাড়িতে ইন্টারনেট সংযোগ দিতে পারে।

ফাইবার অপটিক কেব্‌লের মাধ্যমে এক গিগাবাইটের কোনো ফাইল সহজেই ১০ কিলোমিটার অতিক্রম করতে পারে।

বাংলাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের যাত্রা শুরু হয় ২০০৬ সালে। এর পর থেকেই বিভিন্ন সময় ফাইবার অপটিক কেব্‌লের উন্নতি ঘটানোর মাধ্যমে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি পেয়েছে। এ কারণেই কাঙ্ক্ষিত গতিতে ডিভাইসে ভিডিও দেখা ও ভারী ফাইল আদান-প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে।

 

 


মন্তব্য