kalerkantho

বিশ্ব প্রযুক্তিতে

বছরের আলোচিত ৫

২৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বছরের আলোচিত ৫

ফেইসবুকের ডাটা কেলেঙ্কারি

ফেইসবুক সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গকে যদি বলা হয়, ফেইসবুকের জন্ম থেকে কোন বিষয়টি ভুলে যেতে চান? তাহলে নির্ঘাত তিনি চলতি বছরের মার্চ মাসে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার মাধ্যমে ফেইসবুক গ্রাহকের ডাটা কেলেঙ্কারিকে ভুলতে চাইবেন। ফেইসবুক তৈরির পর থেকে যে এটিই সবচেয়ে বড় ধাক্কা বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যমটির জন্য। ২০১৮ সালের পুরোটা জুড়েই আলোচনা-সমালোচনায় ছিল ফেইসবুক। মার্চে সবার সামনে উঠে আসে যে ফেইসবুকের সঙ্গে কাজ করার পর রাজনৈতিক তথ্য বিশ্লেষক ও পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা মাধ্যমটির আট কোটি ৭০ লাখ ব্যবহারকারীর তথ্যের অব্যবহার করেছে।

ঘটনাটি প্রকাশের পরই ফেইসবুকের শেয়ারের দাম পড়ে যায়, সমালোচনা শুরু হয়। মার্কিন কংগ্রেসে ডাক পড়ে। ডাক পড়ে ইউারোপীয় ইউনিয়নের গ্রাহক সুরক্ষা আইনের অধীনে জবাবদিহি করতে। এর রেশ না কাটতে সেপ্টেম্বরে আবারও তিন কোটি গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট হ্যাকের ঘটনা ঘটে। মিউজিক স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম স্পটিফাই ও মিডিয়া সার্ভিস প্রভাইডার নেটফ্লিক্সকেও ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত ম্যাসেজ দেখার সুযোগ দেয় সামাজিক মাধ্যম জায়ান্টটি। যার ফলে সারা বছরেই ছিল আলোচনার কেন্দ্রে।

 

ইলোন মাস্ক

বিদায়ী বছরে বিভিন্ন কারণে আলোচনায় ছিলেন ইলোন মাস্ক। ‘ক্ষ্যাপা প্রকৌশলী’ হিসেবে খ্যাত মাস্কের আকাশের গতিকে কিভাবে মাটিতেই দেওয়া যায় তা নিয়ে কাজ করছেন। হাইপারলুপ নামের নতুন এই প্রযুক্তির মাধ্যমে টিউবের ভেতর দিয়ে ঘণ্টায় অন্তত এক হাজার ২০০ কিমি বেগে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিয়ে যাওয়ার কাজ করছেন। এ বছর বিদ্যুত্চালিত গাড়ির বাজার দ্রুত সম্প্রসারণের কারণেও আলোচনায় ছিলেন তিনি। চলতি বছর তার প্রতিষ্ঠান টেসলা বিদ্যুত্চালিত গাড়ির উন্নয়নে অনেক অবদান রেখেছে। তবে বিভিন্ন সময় নানা ধরনের টুইট করে সমালোচনারও জন্ম দিয়েছেন তিনি। এমনকি মামলারও মুখোমুখি হয়েছেন টুইট করে।

 

সবাইকে ছাড়িয়ে জেফ বেজোস

শীর্ষ ধনী ব্যক্তির তালিকায় যেন পাকাপোক্তভাবে আসন গেড়েছিলেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রধান নির্বাহী বিল গেটস। সেই আসনের ভাগীদার হতে অনেক সময় অনেকেই বিল গেটসের সঙ্গে টক্কর দিলেও ছুঁতে পারছিলেন না তাঁকে। অবশেষে গত ৭ মার্চ তাঁকে সরিয়ে বিশ্বর সবচেয়ে সম্পদশালী ব্যক্তির খেতাব জয় করেন ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। ফোর্বসের সেই তালিকার তথ্য অনুযায়ী মার্চে জেফ বেজোসের সম্পদের পরিমাণ দাঁড়ায় ১১ হাজার ২০০ কোটি মার্কিন ডলার। মূলত লাগাতার এক বছর অ্যামাজনের শেয়ারমূল্য বাড়ার ফলে তাঁর এই শীর্ষ অবস্থানে আসা। তবে তাঁর এমন ধনী হওয়ার খবরের পর আরেক দফা শেয়ারমূল্য বাড়লে তাঁর সম্পদের পরিমাণ ১২ হাজার ৭০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যায়।

 

জ্যাক মা’র অবসর

১০ সেপ্টেম্বর আলিবাবার এক সম্মেলনে প্রধান নির্বাহী জ্যাক মা জানান, এক বছর পর অর্থাৎ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে পদ থেকে সরে যাচ্ছেন তিনি। এখন থেকে করবেন শিক্ষকতা। আর তার পদের দায়িত্ব নেবেন ড্যানিয়েল ঝাং।

১৯৯৯ সালে জ্যাক মাসহ কয়েকজন অংশীদার মিলে প্রতিষ্ঠা করেন আলিবাবা। ৫৪ বছর বয়সী জ্যাক মা চীনের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি। তাঁর সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৪০ বিলিয়ন বা চার হাজার কোটি ডলার।

 

ট্রিলিয়ন ডলারের প্রতিষ্ঠান অ্যাপল

প্রথমবারের মতো ট্রিলিয়ন ডলার বা এক লাখ কোটি ডলার কম্পানির মাইলফলক স্পর্শ করে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। বিদায়ী বছরের আগস্ট মাসে প্রতিষ্ঠানটি এই অঙ্ক ছুঁতে সক্ষম হয়। বিশ্বের প্রথম কোনো পাবলিক কম্পানির আর্থিক মূল্য হয় সেটি।

১৯৮০ সালে কম্পানিটি তালিকাভুক্ত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো শেয়ারের স্টক মূল্য ৫০ হাজার শতাংশ বেড়েছে। প্রতিষ্ঠানটির তৈরি করা ম্যাকবুক, আইপ্যাড, আইফোন জনপ্রিয় হওয়ার কারণেই দিন দিন প্রতিষ্ঠানটির মূল্যও বাড়ছে।  

ইমরান হোসেন মিলন

মন্তব্য