kalerkantho

বিশ্বকাপে চোখ রেখে শুরু আইপিএল

২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিশ্বকাপে চোখ রেখে শুরু আইপিএল

খেলাটা ২০ ওভারের। ওয়ানডে বিশ্বকাপের সঙ্গে ফরম্যাটে মিল নেই। এর পরও আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলের (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) ১২তম আসর মাঠে গড়াচ্ছে বিশ্বকাপে চোখ রেখে। প্রথম দিন চিপকে মুখোমুখি বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস ও বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। আলোঝলমলে এই টুর্নামেন্ট শেষ হচ্ছে ১২ মে। এর তিন সপ্তাহ পরই বিশ্বকাপ। গুরুত্বটা বাড়ছে এ জন্য।

আলাদা নজর থাকছে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের ওপর। অস্ট্রেলিয়ান নির্বাচকরা জানিয়ে দিয়েছেন, বিশ্বকাপে সুযোগ পেতে হলে রান করতে হবে আইপিএলে। ভারতও তাদের ব্যাটিংয়ের চার নম্বর জায়গাটা ঠিক করবে আইপিএলে ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স দেখে। বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া প্রায় সব দলের প্রতিনিধি রয়েছেন আইপিএলে। কেউ যেন চোট পেয়ে না বসেন, থাকছে সেই উদ্বেগ। ফরম্যাট আলাদা হলেও আইপিএল শুরু হচ্ছে তাই বিশ্বকাপে একটা চোখ রেখে।

বল বিকৃতি কেলেঙ্কারিতে এক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ছিলেন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। আইপিএলও বিতর্ক এড়াতে অস্ট্রেলিয়ান দুই ক্রিকেটারকে খেলতে দেয়নি গত বছর। আগামীকাল কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফিরছেন ওয়ার্নার। নিষেধাজ্ঞার পর বিপিএল খেললেও মাঝপথে দেশে ফেরেন চোট পেয়ে। সাকিব আল হাসানও বিপিএলের পর নিউজিল্যান্ড যাননি চোটের কারণে। শর্ত সাপেক্ষে তিনি অনুমতি পেয়েছেন আইপিএল খেলার। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ আগামীকাল সাকিবকে সেরা একাদশে রাখে কি না সেটাই দেখার।

স্টিভেন স্মিথ খেলেছেন বিপিএলে। ওয়ার্নারের মতো তাঁকেও মাঝপথে  দেশে ফিরতে হয় চোট পেয়ে। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে সোমবার তিনি ফিরবেন দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিপক্ষে। বিশ্বকাপ দলের ভাবনায় থাকা কাউকে অস্ট্রেলিয়ার মতো চাপ দিচ্ছেন না ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি, ‘চোট পেয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যেতে চায় না কেউ। এ জন্য আমি বলব সবাইকে আইপিএলটা উপভোগ করতে।’

আগের আসরগুলোর মতো বলিউড তারকাদের নিয়ে জমজমাট উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হচ্ছে না এবার। এর বেঁচে যাওয়া টাকাটা দান করা হবে পুলওয়ামা হামলায় নিহত সেনাসদস্যদের পরিবারকে। উদ্দাম নাচ-গান না থাকলেও সেনাবাহিনীর একটি দলের পরিবেশনায় থাকছে ‘মিলিটারি ব্যান্ড’ পারফরম্যান্স। এর পাশাপাশি ভারতের সাধারণ নির্বাচনের কারণে নিরাপত্তা নিয়ে গলদঘর্ম নিরাপত্তারক্ষীরা। সব মিলিয়ে আইপিএলের ১২তম আসর অন্য রকম চ্যালেঞ্জ বিসিসিআইয়ের। পিটিআই

মন্তব্য