kalerkantho

ম্যানইউ-আর্সেনাল জিতল না কেউ

৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ম্যানইউ-আর্সেনাল জিতল না কেউ

বার্নলির মাঠ টার্ফ মুরে, খেলার আয়ু যখন এক ঘণ্টার কাছাকাছি; তখন রীতিমতো মৌসুমের প্রথম হার চোখ রাঙাচ্ছে লিভারপুলকে। প্রথমার্ধটা কেটেছে গোলশূন্য, দ্বিতীয়ার্ধে খেলা শুরুর ১০ মিনিটের ভেতর বার্নলির জ্যাক কর্ক গোল করে এগিয়ে দিলেন স্বাগতিকদের। লিভারপুল সমর্থকদের হৃৎকম্পন বেড়েছে তখন থেকেই। অবশ্য শেষ বাঁশি বাজার সময় তাদের মুখেই প্রশান্তির হাসি! দিভক ওরিগির বদলি হিসেবে নামা রবার্তো ফিরমিনো বলে প্রথম স্পর্শেই পেয়েছেন গোলের দেখা। সঙ্গে জেমস মিলনার ও শেষ সময়ে জারদান শাকিরির গোলে ৩-১ ব্যবধানে জিতে পয়েন্ট টেবিলে দুইয়ে উঠে এসেছে লিভারপুল। শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান মাত্র ২। কিন্তু তার চেয়েও বড় ব্যাপার, এই নিয়ে মৌসুমের প্রথম ১৫ ম্যাচে মাত্র ৬ গোল হজম করেছে লিভারপুল, যা তাদের সঙ্গী করেছে ’৮৫-৮৬-র ম্যানইউ ও ’৯১-৯২-র আর্সেনাল আর ’০৪-০৫ ও ’০৮-০৯ মৌসুমের চেলসির। শুধু তা-ই নয়, নিজেদের ইতিহাসে প্রথম ১৫ ম্যাচে সবচেয়ে বেশি পয়েন্ট (৩৯) অর্জনের কৃতিত্বও এই মৌসুমে দেখাল ‘অলরেড’রা। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে কেউ জেতেনি, ২-২ গোলে ড্র করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আর্সেনাল। হেরে গেছে চেলসি, উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্সের কাছে তাদের হার ২-১ গোলে।

জ্যাক কর্কের গোলটা বেশ ভাবনাতেই ফেলে দিয়েছিল ইয়ুর্গেন ক্লপকে। ম্যাচের পর তাঁর ভাষায় অবস্থাটা ছিল এ রকম, ‘আমরা নিজেরাই নিজেদের জীবন কঠিন করে তুলেছিলাম।’ আশীর্বাদ হিসেবে এলেন ফিরমিনো। ৬২ মিনিটে মিলনার শোধ করেছিলেন বার্নলির গোলটা, ৬৬ মিনিটে বদলি নেমে ৬৯ মিনিটেই গোল করেন ব্রাজিলিয়ান ফিরমিনো! এই সাত মিনিটেই ভাগ্য বদলে যায় লিভারপুলের। শেষ সময়ে জাকার গোল ব্যবধানটা বাড়িয়ে করে ৩-১।

দুইবার পিছিয়ে পড়ার পর সমতা ফিরিয়েও শেষ পর্যন্ত আর্সেনালকে নিজেদের মাঠেও হারাতে পারেনি ম্যানইউ। বরং আত্মঘাতী গোলের খেসারত দিয়ে হারিয়েছে ২ পয়েন্ট। রোমেলু লুকাকু ও পল পগবাকে বাদ দিয়েই ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গানারদের সামনে একাদশ সাজিয়েছিলেন হোসে মরিনহো। মার্কোস রোহো আত্মঘাতী গোলটা না করলে হয়তো এই দল নিয়েই জয় নিশ্চিত করতে পারতেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জিততে পারল না ম্যানইউ। নভেম্বরের ৩ তারিখে, বোর্ন মাউথের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ের পর আর কোনো ম্যাচ প্রিমিয়ার লিগে জিততে পারেনি রেড ডেভিলরা। ম্যানচেস্টার ডার্বিতে হারের পর টানা তিন ম্যাচে তারা করেছে ড্র, ২-২ গোলে ড্র পর পর দুই ম্যাচে। ম্যানইউর দুটি গোল মার্সিয়াল ও লিনগার্ডের, আর্সেনালের একটি গোল মুস্তফির, অন্যটি রোহোর আত্মঘাতী।

ম্যাচের ১৮ মিনিটে রুবেন লফটাস-চিকের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরও ৫৯ থেকে ৬৩—এই ৪ মিনিটে ২ গোল হজম করে হেরে গেছে চেলসি। উলভসের দুই গোলদাতা রাউল হিমেনেস ও ডিয়েগো ইয়োতা। টটেনহাম ৩-১ গোলে হারিয়েছে সাউদাম্পটনকে, ফুলহাম ১-১ গোলে ড্র করেছে লিস্টার সিটির সঙ্গে। ফরাসি লিগে স্ট্রাসবুর্গের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে প্যারিস সেন্ত জার্মেই। স্পেনে কোপা দেল রে’তে কালচারাল লিওনেসার সঙ্গে ৪-১ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ৪-০ গোলে হারিয়েছে সেন্ট অ্যান্ড্রুকে। গোল ডটকম

মন্তব্য