kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

আমাদের লক্ষ্য শিরোপা জয়

২১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



আমাদের লক্ষ্য শিরোপা জয়

গতবার অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ ফুটবলের শিরোপা ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার সেই শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন নেপালেই। কোচ পারভেজ বাবুর অধীনে ফুটবলাররা নীলফামারীতে টানা দুই মাস অনুশীলন করেছে। ২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া এ আসর নিয়ে কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ কোচ

 

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : প্রস্তুতি শেষ, এবার লড়াইয়ের অপেক্ষা। কতটা আত্মবিশ্বাসী আপনি দল নিয়ে?

পারভেজ বাবু : দলের ওপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে। ছেলেদের সেরা একটা দল হিসেবে তৈরি করার জন্য আমি চেষ্টার কমতি রাখিনি। এখন মাঠে আমাদের প্রমাণের অপেক্ষা। আশা করি হতাশ করব না।

প্রশ্ন : শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশন এবার বাংলাদেশের, চ্যালেঞ্জটা কতটা কঠিন?

পারভেজ : যেকোনো টুর্নামেন্টেই চ্যাম্পিয়ন হওয়া কঠিন। তবে আমাদের সেই সামর্থ্য আছে। আমাদের গতবারের দলটারও সেই সামর্থ্য ছিল। অনেকটা দুর্ভাগ্যজনকভাবে নেপালের বিপক্ষে সেমিফাইনালে আমরা হেরে যাই। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ভুটানের জালে আট গোলও আমাদের সামর্থ্যের কথাই বলে। যাহোক এবার আমরা ধাপে ধাপে এগোতে চাই। টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচ মালদ্বীপকে নিয়েই এখন আমাদের মূল ভাবনা।

প্রশ্ন : মালদ্বীপের সঙ্গে নেপালও এবার গ্রুপ প্রতিপক্ষ, অর্থাত্ গ্রুপেই নিজেদের সামর্থ্য প্রমাণের চ্যালেঞ্জ এই দলের...

পারভেজ : মালদ্বীপ আমাদের মুখোমুখি হওয়ার আগেই নেপালের বিপক্ষে খেলবে। সেই ম্যাচে ওরা যদি হেরে যায়। তাহলে পরের ম্যাচে ওদের হারিয়েই আমাদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার সুযোগ। সেটা নিয়েই এখন বেশি ভাবছি। পরের নেপাল ম্যাচটি নিয়ে ততটা না। অবশ্যই নেপালকে হারাতে পারলে আমরা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হব, সেখানে সেমিফাইনালে ভারতকে এড়ানো যাবে। তবে আমি ম্যাচ ধরে ধরেই এগোতে চাই।

প্রশ্ন : দুই মাসে যে দলটা তৈরি হলো আপনার হাতে, তার বৈশিষ্ট্য কী?

পারভেজ : আমরা সব দিক দিয়ে প্রস্তুতি নিয়েছি। ম্যাচ অনুযায়ী গেম প্ল্যান সাজানো হবে। ধরে খেলার দরকার হলে সেটা তারা পারবে, যখন কাউন্টার অ্যাটাকের প্রয়োজন হবে সেটাও করবে, পুরোপুরি আক্রমণাত্মকও হতে পারবে দরকার হলে। খেলোয়াড়দের নিয়ে আমি আশাবাদী। প্রায় সাড়ে ছয় শ ফুটবলারের ট্রায়াল থেকে প্রথমে ১৫০ জন, সেখান থেকে ৬০ এবং সর্বশেষ সেরা ৩৫ ফুটবলারকে নিয়ে আমি ক্যাম্প করেছি। তারা এই দুই মাসে আরো ধারালো হয়েছে। তাতে আমি আশা করতেই পারি, সাফে এবার একটা ভালো ফল হবে।

প্রশ্ন : গতবারের দলের ফয়সাল আহমেদ সেরা গোলদাতা ছিল, আরাফাত, মিরাজরাও আলো ছড়িয়েছে। তাদের তুলনায় এবারের দলটি কেমন?

পারভেজ : আমি তুলনায় যাব না। গতবার ভালো খেলেও শিরোপা জিততে পারিনি। এই দলটা সেই লক্ষ্যেই যাবে।



মন্তব্য