kalerkantho


‘স্বপ্ন সত্য হলো’

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



মেসি-রোনালদোকে ছাপিয়ে

এসব নিয়ে একদমই ভাবছি না। এ পুরস্কারটা পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। আমার অনেক ভালো বন্ধু আছে—ওরা দুজন এবং আরো অনেকে। তাদেরও পেছনে ফেলেছি, এতে আমার ভেতর গর্বটা আরো বেশি হচ্ছে। এতে প্রমাণিত হয় যে কঠোর পরিশ্রম করলে শেষ পর্যন্ত তার ফল পাওয়া যায়। এটা এমন একটা রাত, যে রাতে আমার সব স্বপ্ন সত্য হলো।

এ বছরে নিজের নৈপুণ্য

অসাধারণ, দুর্দান্ত, আমার ক্যারিয়ারেরই অন্যতম সেরা মৌসুম। ব্যক্তিগত ও দলগত—উভয় পর্যায়েই। দেশের জন্য, ক্লাবের জন্য আমি যা করতে পেরেছি, তাতে আমি খুবই সন্তুষ্ট। আর এসব ব্যক্তিগত পুরস্কারের কথাও বলতে হয়। ফিফার দ্য বেস্ট ছাড়াও বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়েরও পুরস্কার জিতেছি।

বছরের সেরা মুহূর্ত

অনেক কিছুই হয়েছে, কোনো একটা বেছে নেওয়া কঠিন। আমার মনে হয় শেষ পর্যন্ত সেটা বিশ্বকাপের ফাইনালটাই। আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় ম্যাচ। দেশের হয়ে বিশ্বকাপ ফাইনালে খেলছি, বিশ্বের সবচেয়ে বড় আসরে—এটা অনন্য অনুভূতি। দলের অধিনায়ক হওয়ার কারণে বাড়তি একটা অনুপ্রেরণাও কাজ করছিল। দুর্ভাগ্যবশত দিনটা আমাদের ছিল না আর আমরা ফাইনালে হেরে যাই। এর পরও অত দূর যাওয়াটাকে আমি একটা সাফল্য হিসেবেই দেখি। আমরা এমন কিছু করেছি, যেটা ইতিহাস হয়ে থাকবে।

স্বপ্নপূরণের নেপথ্যে

কেউ যখন ফুটবল খেলা শুরু করে, তখন তার একটা স্বপ্ন থাকে। আমি সব সময়ই সেরা হতে চাইতাম। তাই আমি স্বপ্ন দেখতাম সেরা হওয়ারই, এটাই স্বাভাবিক। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ এই পর্যন্ত নিয়ে আসার জন্য। এখানে আসার জন্য আমি অনেক কষ্ট করেছি। বারবার নিজের সামর্থ্যের সীমানাটাকে ঠেলতে চেয়েছি আর নিজের ওপর আস্থা রেখেছি। এমনকি কঠিন সময়েও। এত দূর যে আসতে পেরেছি, এ জন্য সতীর্থ, পরিবার ও বন্ধুদের সবাইকে ধন্যবাদ।



মন্তব্য