kalerkantho


রোনালদোর নতুন অধ্যায়

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



রোনালদোর নতুন অধ্যায়

জুভেন্টাসের জার্সিতে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পেয়ে গেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সাসুউলোর বিপক্ষে ২ গোল করে তুরিনের ক্লাবটির হয়ে গোলের খাতা খুলে ফেলেছেন ‘সিআরসেভেন’। আজ নতুন ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে ‘অভিষেক’ হতে যাচ্ছে রোনালদোর! যে লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো, যে শিরোপাটি দুটি আলাদা ক্লাবের হয়ে জিতেছেন পাঁচবার, রিয়াল মাদ্রিদের হয়েই জিতেছেন টানা তিনবার; সেই আসরেই জুভেন্টাসের ‘সাদা-কালো’ জার্সি গায়ে আজ অভিষেক হতে যাচ্ছে পর্তুগিজ তারকার। প্রতিপক্ষ ভ্যালেন্সিয়া। একই সময় মাঠে নামবে রোনালদোর সাবেক ক্লাব ও বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। নিজ মাঠে তাদের প্রতিপক্ষ রোমা। ম্যানচেস্টার সিটি খেলবে অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড খেলবে ইয়ং বয়েজের বিপক্ষে।

প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে খেলার অভিজ্ঞতা রোনালদোর হয়েছিল ২০০৩ সালের অক্টোবরে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে স্টুটগার্টের বিপক্ষে ম্যাচটিতে যদিও ২-১ গোলে হারের অভিজ্ঞতা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছিল তাঁকে। তবে ম্যানইউর একমাত্র গোলটি হয়েছিল রোনালদোকে ফাউল করার জন্য ঘোষিত পেনাল্টি কিক থেকেই। রিয়ালের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে অভিষেক ২০০৯ সালের সেপ্টেম্বরে, প্রথম ম্যাচটি ছিল এফসি জুরিখের বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচেই রোনালদো করেছিলেন জোড়া গোল। ইতিহাস বলছে, চ্যাম্পিয়নস লিগে নতুন ক্লাবের হয়ে প্রথম ম্যাচটিতে ভালো ও মন্দ—দুই রকম অভিজ্ঞতাই আছে রোনালদোর। তবে প্রতিপক্ষ যখন স্পেনের দল ভ্যালেন্সিয়া, যাদের বিপক্ষে আগে গোল করার অভিজ্ঞতা আছে রোনালদোর, তখন মন্দ অভিজ্ঞতাটাকে দূরে সরিয়েই রাখা যায়। মেসতালায় বুধবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি। সাসুউলোকে ২-১ গোলে হারিয়ে টানা চার ম্যাচ জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে মেসতালায় পা রাখবে জুভরা। অন্যদিকে লিগে এবার বেশ দূরবস্থা চলছে ভ্যালেন্সিয়ার। এখনো তারা জিততে পারেনি একটি ম্যাচও, চার ম্যাচে তিন ড্র আর এক হারে পয়েন্ট টেবিলের ১৭ নম্বরে!

চ্যাম্পিয়নস লিগের সবচেয়ে বেশি ১৩ বারের শিরোপাজয়ীরা কিন্তু খুব একটা ভালো অবস্থানে থেকে এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে পা ফেলছে না। সব শেষ ম্যাচে অ্যাথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়ে ১-১ গোলে ড্র করেছে মাদ্রিদিস্তারা। চ্যাম্পিয়নস লিগের নতুন মৌসুমে শিরোপাধারীদের সামনে প্রথম চ্যালেঞ্জার এএস রোমা। এর আগে ১০ বার মুখোমুখি হয়েছে দুই দল, রিয়ালের জয় ছয় ম্যাচে, রোমা জিতেছে তিন ম্যাচ আর একটি ড্র। উয়েফা

 



মন্তব্য