kalerkantho


সংক্ষিপ্ত

মেসির কান্না

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিশ্বের সেরা ফুটবলারটিকে জাতীয় দলের হয়ে একটি শিরোপা জেতার জন্য আর কত অপেক্ষা করতে হবে? এই প্রশ্ন লিওনেল মেসির ভক্তকুলের। তিনবার বড় আসরের ফাইনাল খেলে খালি হাতে ফিরে আসা আর্জেন্টিনা দল থেকে আপাতত মুখ ফিরিয়েই নিয়েছেন মেসি, রাশিয়া বিশ্বকাপের পর অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য জাতীয় দল থেকে নিয়েছেন স্বেচ্ছা নির্বাসন। কতটা কষ্টে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেসি, সেটা তাঁর মতো করে তো আর কেউ জানবেন না। মেসির মনের গভীর কষ্টের খানিকটা বুঝতে পেরেছিলেন এলভিও পাওলোরসো, যিনি জেরার্দো মার্তিনো জাতীয় দলের কোচ থাকা অবস্থায় ছিলেন ফিটনেস কোচ। ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে টাইব্রেকারে স্পটকিক মিস করেছিলেন মেসি। আর্জেন্টিনা হেরে গিয়েছিল ৪-২ গোলে। সেই হারের পর মাঝরাতে হাউমাউ করে কেঁদেছিলেন মেসি, জানালেন পাওলোরসো, ‘অমন হারের পর ড্রেসিংরুমটা ছিল শ্মশানের মতো, তবে এর চেয়েও খারাপটা এসেছে খানিক পরে। রাত তখন দুটোর মতো হবে, একটু কমবেশিও হতে পারে। কী একটা কাজে গুদামঘরে গেছি। গিয়ে দেখি মা হারানো শিশুর মতো কাঁদছে মেসি। সম্পূর্ণ একা, বিধ্বস্ত, কেউ তাঁকে সান্ত্বনা দিতে পারছিলাম না। আমি তাঁকে জড়িয়ে ধরলাম, একটু ওয়াইন পান করতে দিলাম ওকে। আমি মেসিকে আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনায় দেখেছি, এতটা ভেঙে পড়তে কখনো দেখিনি।’ এএস



মন্তব্য