kalerkantho


জার্মানি-ফ্রান্সের ড্রয়ে শুরু গোলমেলে নেশন্স লিগ

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



জার্মানি-ফ্রান্সের ড্রয়ে শুরু গোলমেলে নেশন্স লিগ

বিশ্বকাপ ও ইউরো—ইউরোপিয়ান দেশগুলোর জন্য প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট বলতে এই দুটিই তো; সঙ্গে বাছাই পর্ব। টুর্নামেন্ট ও বাছাই পর্বের বাইরের সময়টা ‘অর্থহীন’ প্রীতি ম্যাচ খেলেই কাটে দলগুলোর। সেটিকে ‘অর্থপূর্ণ’ করার জন্যই পরশু থেকে শুরু হয়েছে উয়েফা নেশন্স লিগ। যেখানে প্রথম দিনের প্রথম মহারণেই মুখোমুখি গেল দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও জার্মানি। গোলশূন্যভাবে শেষ হয়েছে এ দ্বৈরথ।

খেলা হয়েছে আরো অনেকগুলো। তবে ম্যাচের ফলের চেয়ে প্রতিযোগিতার ধরন আত্মস্থ করতেই গলদঘর্ম হচ্ছেন সমর্থকরা। এমনকি দলগুলো পর্যন্ত। ফরম্যাটের মোদ্দাকথা হলো, উয়েফার অন্তর্ভুক্ত ৫৫টি দেশকে ভাগ করা হয়েছে চার লিগে। ২০১৭ সালের ১১ অক্টোবরের উয়েফা কো-ইফিশিয়েন্ট র্যাংকিং অনুযায়ী সেরা ১২ দল লিগ ‘এ’তে, পরের ১২ দল লিগ ‘বি’তে, পরের ১৫ দল লিগ ‘সি’তে এবং শেষ ১৬ দলের অবস্থান লিগ ‘ডি’তে। প্রতিটি লিগে করা হয়েছে চারটি গ্রুপ, সেখানকার দলগুলো একে অপরের সঙ্গে খেলবে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ম্যাচ। লিগ ‘এ’-র দলগুলোই যেহেতু র্যাংকিং সেরা, ওখানকার চার গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল আগামী গ্রীষ্মে আরেকটি ‘মিনি টুর্নামেন্ট’-এ লড়বে উয়েফা নেশন্স লিগের শিরোপার জন্য। উত্তীর্ণ চার দলের একটি হবে স্বাগতিক; সেখানে দুটি সেমিফাইনাল, তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ও ফাইনাল থাকবে। বাকি তিন লিগের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন দলগুলো ২০১৯-২০ টুর্নামেন্টে উঠে আসবে ওপরের লিগে। আর প্রথম তিন লিগে প্রতি গ্রুপের শেষ চারটি দল চলে যাবে পরের লিগে।

গোলকধাঁধার মতো গোলমেলে এই প্রতিযোগিতার প্রথম দিন লিগ ‘এ’-ম্যাচে মাঠে নামে ফ্রান্স-জার্মানি। মিউনিখের এ দ্বৈরথে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের খুঁজেই পাওয়া যায়নি সেভাবে। বরং রাশিয়ায় প্রথম রাউন্ডে বিদায় নেওয়া জার্মানি ছিল অনেক উজ্জ্বল। ফরাসিদের অভিষিক্ত গোলরক্ষক আলফনসে আরেলোয়া যদি দ্বিতীয়ার্ধে অমন দারুণ সব সেভ না করতেন, তাহলে বিশ্বকাপ ট্রফি জয়ের পরের ম্যাচেই হারতে হতো দিদিয়ের দেশমের দলকে।

এ ছাড়া পরশু লিগ ‘বি’তে ওয়েলস ৪-১ গোলে আয়ারল্যান্ডকে এবং ইউক্রেন ২-১ গোলে চেক প্রজাতন্ত্রকে হারিয়েছে। লিগ ‘সি’তে নরওয়ে ২-০ গোলে সাইপ্রাসকে এবং বুলগেরিয়া ২-১ গোলে হারায় স্লোভেনিয়াকে। লিগ ‘ডি’তে জর্জিয়া ২-০ গোলে কাজাকিস্তানকে, আর্মেনিয়া ২-১ গোলে লিচেনস্টেইনকে এবং মেসিডোনিয়া ২-০ গোলে জিব্রাল্টারকে হারায়। গোলশূন্য ড্র হয় লাটভিয়া-অ্যানডোরা ম্যাচ। উয়েফা



মন্তব্য