kalerkantho


বসুন্ধরা কিংসের স্বপ্নসারথি অস্কার

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বসুন্ধরা কিংসের স্বপ্নসারথি অস্কার

বসুন্ধরা কিংসের কার্যালয়ে নতুন কোচ অস্কার ব্রুজন (মাঝে) ও বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসান (ডানে)।

ক্রীড়া প্রতিবেদক : স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজনের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তি সই করল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের নতুন দল বসুন্ধরা কিংস। গতকাল বসুন্ধরা কিংসের কার্যালয়ে চুক্তিপত্রে সই করেন ব্রুজন ও বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসান। প্রাথমিকভাবে চুক্তির মেয়াদ এক বছর।

 

চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ জিতে এবারই প্রথম প্রিমিয়ার লিগে পা রেখেছে বসুন্ধরা কিংস। নবাগত ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসান জানিয়েছেন, শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলে এসে প্রথম মৌসুমেই তাঁদের লক্ষ্য শিরোপা জেতা, ‘আমাদের চোখ শিরোপায়, অন্য কোনো কিছুতেই আমরা সন্তুষ্ট হব না।’ মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্ট এফসির সদ্য সাবেক কোচ অস্কারও জানালেন, চ্যালেঞ্জটা নিতে তিনি তৈরি, ‘বসুন্ধরার ব্যবস্থাপনা কৌশলের মধ্যেই উচ্চাকাঙ্ক্ষার বীজ রয়েছে। আমরা শুধুই অংশগ্রহণ করার জন্য আসিনি, আমরা শিরোপা জিততে এসেছি। আমি জানি আমাদের প্রতিভা কতখানি, আমি জানি এই দলের ধরনটা কেমন, আমরা সাফল্যের একটা উপায় বের করব।’

লিগে নতুন এসেই শিরোপা জয়ের প্রত্যয় দেখানো বসুন্ধরা কিংসকে লড়তে হবে দেশের ফুটবলের প্রথাগত শক্তি আবাহনী, মোহামেডান, ব্রাদার্সসহ উঠতি শক্তি শেখ রাসেল, শেখ জামাল, সাইফ স্পোর্টিংয়ের মতো দলগুলোর বিপক্ষেও। তাদের সম্পর্কে খুব বেশি ধারণা না থাকলেও দ্রুতই তাদের ব্যাপারে জেনে নেওয়ার আশ্বাস সাবেক এই মিডফিল্ডারের, ‘আমি নতুন হলেও বেশ কয়েকটি দল সম্পর্কে ধারণা আছে আমার। সব শেষ এএফসি কাপে আমরা আবাহনীকে হারিয়েছি। সাইফ স্পোর্টিংকেও মালদ্বীপের একটি দলের বিপক্ষে খেলতে দেখেছি। আমি জানি বাংলাদেশের ফুটবল লিগ কতটা শক্তিশালী। দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল একটি ফুটবল লিগ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। প্রতিটি দলই আরো আধুনিক ও উন্নত ফুটবল কৌশল রপ্ত করতে চাচ্ছে। যে কারণে বসুন্ধরা কিংস একজন স্প্যানিশ কোচকে নিয়ে এসেছে।’

ভিগো শহরের বাসিন্দা অস্কার, যে শহরের দল সেল্তা ভিগো নিয়মিতই খেলে লা লিগায়। দেশে থাকতে সেল্তা ভিগোর যুব দলের সঙ্গে জড়িত ছিলেন, এরপর দক্ষিণ এশিয়ায় ভারত ও মালদ্বীপ মিলিয়ে লম্বা সময় কাটানোর অভিজ্ঞতা। নতুন ঠিকানা বাংলাদেশ। অস্কার মনে করেন, এই অঞ্চলে প্রাচীন ব্রিটিশ ঘরানার ফুটবলের একটা প্রভাব রয়েছে, যা কাটিয়ে আধুনিক পজেশনভিত্তিক ফুটবল খেলাতে চান তিনি, ‘একজন ভালো কোচের গোপন রহস্যটা হচ্ছে, অন্যকে অনুকরণ করা নয় বরং সব কোচের কাছ থেকে ভালোটা গ্রহণ করা। আমার কোনো কোচিং আইডল নেই। যখনই আমি সুযোগ পাই, সেল্তা ভিগোর অনুশীলন দেখি আর তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করি। স্প্যানিশ হিসেবে আমি বলের পজেশন ধরে রেখে খেলাটা পছন্দ করি। আমি খেলায় গতি পছন্দ করি, প্রতিপক্ষের অর্ধে গিয়ে খেলতে পছন্দ করি; দেখা যাক যে খেলোয়াড় আমার হাতে আছে তাদের নিয়ে কতটুকু কী করতে পারি। এশিয়ায় ব্রিটিশ ফুটবলের একটা প্রভাব আছে, যেটা অনেক বেশি ডিরেক্ট। আমি খেলার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের কাছে রাখতে পছন্দ করি, প্রেসিং ফুটবল, হাইলাইন ডিফেন্স পছন্দ করি। আশা করি ধীরে ধীরে আমরা আমাদের ফুটবলারদের নিয়ে আদর্শ একটা পদ্ধতি তৈরি করে নেব।’

গতকাল আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর শেষে প্রথমবারের মতো শিষ্যদের নিয়ে অনুশীলনে নেমেছেন অস্কার ব্রুজন। মাঠের খেলার পাশাপাশি তাঁর চোখ থাকবে সাফ ফুটবলেও। যেখানে বাংলাদেশ ছাড়াও অন্য দলগুলোর দিকেও চোখ থাকবে তাঁর, ভালো কাউকে পেলে চেষ্টা করবেন বসুন্ধরা কিংসে তাদের সই করাতে। কিংস কর্তৃপক্ষও জানিয়ে দিয়েছে, এএফসি কাপে দলকে তুলতে পারলেই থাকবে আকর্ষণীয় বোনাস। মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্টের কোচ হিসেবে দারুণ সফল অস্কার, বসুন্ধরা কিংসকে চ্যাম্পিয়নের রাজমুকুটটা এনে দেওয়ার গুরুদায়িত্বটা তাই তাঁরই।



মন্তব্য