kalerkantho


রোনালদোর দলবদলে অবাক মেসি

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



রোনালদোর দলবদলে অবাক মেসি

রোনালদোর দলবদলে আমি অবাক হয়েছি। ও মাদ্রিদ ছেড়ে দেবে সেটি যেমন ভাবিনি, তেমনি ভাবিনি জুভেন্টাসে যোগ দেবে। আরো অনেক ভালো ভালো দল ওকে চাইছিল। ওর সম্ভাব্য গন্তব্য হিসেবে জুভেন্টাসের নাম কমই শুনেছি। সে কারণেই অবাক হয়েছি। তবে ও এখন খুব ভালো এক ক্লাবে যোগ দিয়েছে।

 

রিয়াল মাদ্রিদে নিজের অসন্তোষের কথা আগেও জানিয়েছিলেন। তাই বলে ক্লাব তো ছাড়েননি। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাসে চলে যাওয়া তাই বড় এক চমক হয়ে এসেছে ফুটবলবিশ্বের জন্য। তাঁর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির জন্যও।

‘রোনালদোর দলবদলে আমি অবাক হয়েছি। ও মাদ্রিদ ছেড়ে দেবে সেটি যেমন ভাবিনি, তেমনি ভাবিনি জুভেন্টাসে যোগ দেবে। আরো অনেক ভালো ভালো দল ওকে চাইছিল। ওর সম্ভাব্য গন্তব্য হিসেবে জুভেন্টাসের নাম কমই শুনেছি। সে কারণেই অবাক হয়েছি। তবে ও এখন খুব ভালো এক ক্লাবে যোগ দিয়েছে’—কাতালুনিয়া রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেছেন মেসি। পর্তুগিজ মহাতারকার দলবদলে রিয়াল মাদ্রিদের শক্তি ক্ষয় হয়েছে দাবি করে চ্যাম্পিয়নস লিগে জুভেন্টাসকে ফেভারিট মানছেন বার্সেলোনার জাদুকর, ‘বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের স্কোয়াডের গভীরতা ব্যাপক। তবে রোনালদোর অনুপস্থিতিতে তাদের শক্তি কমেছে নিঃসন্দেহে। অন্যদিকে ও জুভেন্টাসে যোগ দেওয়ায় দলটি এখন চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের পরিষ্কার ফেভারিট। আগেও দুর্দান্ত স্কোয়াড ছিল; এখন রোনালদো যোগ দেওয়ায় ওরা খুবই শক্তিশালী।’

২২ বছর ধরে জিতছে না বলে এ মৌসুমে জুভেন্টাসের বড় লক্ষ্য চ্যাম্পিয়নস লিগ। যে প্রতিযোগিতায় বার্সেলোনারও গভীর মনোযোগ। আর সেটি যে টুর্নামেন্টে তাদের সাম্প্রতিক রেকর্ডের কারণে, তা মনে করিয়ে দেন মেসি, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগে আমাদের ভালো করতেই হবে। কেননা গত তিন মৌসুম ধরে কোয়ার্টার ফাইনালে বাদ পড়ে যাচ্ছি। এর মধ্যে সবচেয়ে বাজে অভিজ্ঞতা গতবার; যেভাবে আমরা বিদায় নিলাম—সে কারণে। এবার তাই চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের দিকে আমরা মনোযোগ দিচ্ছি। আর তা করার মতো স্কোয়াডও রয়েছে আমাদের।’ তবে কাজটি সহজ হবে না বলেও জানেন তিনি, ‘ছোট ছোট ভুলের কারণে অনেকবারই চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিততে পারিনি। পেপ গার্দিওলার সময় ইন্টার মিলান ও চেলসির বিপক্ষে যেমনটা হয়েছিল। আর প্রতিবছরই এ টুর্নামেন্ট জয় আরো কঠিন হয়ে পড়ছে। কেননা ক্লাবগুলো আরো বেশি অর্থ বিনিয়োগ করছে; নতুন নতুন খেলোয়াড় কিনছে। ম্যানচেস্টারের দুই ক্লাব, চেলসি, মাদ্রিদ, আমরা, পিএসজি এবং কয়েকটি ইতালিয়ান ক্লাব—চ্যাম্পিয়ন লিগ জয়ের অনেক দাবিদার।’

নিজেদের দাবি জোরালো করতে দলবদলে আর্তুরো ভিদাল, আর্তুর, ম্যালকম, ক্লেমেন্ত লেংগ্লেতকে এনেছে এবার বার্সা। তাঁদের মধ্যে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার আর্তুর আলাদাভাবে নজর কেড়েছেন মেসির, ‘নতুন খেলোয়াড়রা আমাদের শক্তিশালী করেছে। ওরা খুবই ভালো; আমি অবশ্য চমকে গেছি আর্তুরে। কেননা বার্সায় আসার আগে ওর সম্পর্কে তেমন কিছু জানতাম না। কিন্তু এখন খেলা দেখে মনে হচ্ছে, ওর খেলার ধরন একেবারে জাভির মতো। বল পায়ে ও নিরাপদ, ওর ওপর আস্থা রাখা যায়। ছোট ছোট পাসে খেলে, বল কখনো হারায় না। আর্তুরের খেলার ধরন লা মেসিয়া থেকে উঠে আসা ফুটবলারদের মতো। আমাদের সঙ্গে ও তাই খুব দ্রুত মানিয়ে নিয়েছে।’

রোনালদো যেমন রিয়াল ছেড়েছেন, মেসির তেমনি বার্সেলোনা ছাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে? ২০২১ পর্যন্ত ক্লাবের সঙ্গে চুক্তি তাঁর, তত দিনে বয়স হয়ে যাবে ৩৪ বছর। নতুন পরিকল্পনা করেননি, তবে বার্সা ছাড়ার সম্ভাবনা দেখছেন না মেসি, ‘৪০ বছর বয়স পর্যন্ত খেলব না আমি। আর খেলা থামানোর পর কী করব—তাও জানি না। আমি শুধু বর্তমান সময় নিয়ে ভাবি। আগে চুক্তির মেয়াদ শেষ হোক; এরপর ক্লাবের সঙ্গে কথা বলে করণীয় ঠিক করব। আমার ইচ্ছা বার্সেলোনাতেই থাকার। বাচ্চাদের স্কুল এই শহরে; বন্ধুরা এখানকার। এসবও তো বিবেচনায় থাকে খুব বেশি করে।’ মার্কা

 



মন্তব্য