kalerkantho


সংক্ষিপ্ত

ধোনিকে নিয়ে গুঞ্জন

১৯ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



হার না মানা ১১৩ করেছিলেন লর্ডসে। জো রুট লিডসেও যেন শুরু করলেন সেখান থেকে। ভারতীয় কোনো বোলার আউট করতে পারেননি সিরিজের শেষ ওয়ানডেও। রুটের হার না মানা ১০০-তে শেষ ম্যাচটা ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জিতল অনায়াসে। ২৫৭ রান তাড়া করতে নেমে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ৩৩ বল হাতে রেখে। ২-১ ব্যবধানে নিশ্চিত হয় সিরিজ। আর রুট কীর্তি গড়েন ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে সেঞ্চুরির। হতাশার সিরিজ শেষ ভারতীয় সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি আম্পায়ারের কাছ থেকে চেয়ে নেন ম্যাচ বল। তাতেই ছড়িয়ে পড়ে গুঞ্জন, টেস্টের পর হয়তো ওয়ানডেও ছাড়তে চলেছেন ধোনি। নইলে হারা ম্যাচের বল নিতে যাবেন কেন?

প্রথম ওয়ানডে ৮ উইকেটে হারার পর ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজ জেতায় খুশি অধিনায়ক এউইন মরগান, ‘শুরুটা খারাপ হলেও এরপর উন্নতি করেছি আমরা। দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেললে একই প্রতিপক্ষের সঙ্গে বারবার দেখা হয়, উন্নতির সুযোগটা বেশি থাকে এ জন্য।’ ইংল্যান্ডের হয়ে ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি ১২টি সেঞ্চুরির রেকর্ড ছিল মার্কর্স ট্রেসকোথিকের। ১২৩ ম্যাচে কীর্তিটা করেছিলেন তিনি। জো রুট ১৩তম সেঞ্চুরি করলেন ১১৬ ম্যাচে। অথচ এই সিরিজের আগে ছন্দে না থাকায় বাদ পড়েছিলেন টি-টোয়েন্টিতেও। রুটের টানা দুই সেঞ্চুরিতে স্বস্তি মরগানের, ‘রুট রানে ফিরেছে। ওর ওপর আমাদের যে আস্থা সেটাও ফিরে এসেছে। চাপের এই সিরিজে টানা দুই সেঞ্চুরি বিশেষ কিছুই।’

গত অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। এবার গুঞ্জন ওয়ানডেও হয়তো ছাড়তে চলেছেন তিনি। খেলা শেষে আম্পায়ারের কাছ থেকে ম্যাচ বল চাওয়ার পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে আলোচনার ঝড়। গত পরশু শেষ ওয়ানডেতে ৪৪ রান করলেও খেলেছেন ৬৬ বল। লর্ডসের দ্বিতীয় ম্যাচেও করেছিলেন ৫৯ বলে ৩৭। ধীরগতির এই ব্যাটিংয়ের জন্যই বেশ কিছুদিন ধরে সমালোচিত তিনি। তবে ধোনির পাশে আছেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। নিজের দল নিয়েও কোনো অসন্তুষ্টি নেই তাঁর। ক্রিকইনফো



মন্তব্য