kalerkantho


বিশ্বকাপ কর্নার

২১ মে, ২০১৮ ০০:০০



বিশ্বকাপ কর্নার

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে

দুজনেরই জন্ম জার্মানিতে। তবে শরীরে বইছে তুর্কি রক্ত। মেসুত ওয়েজিল আর ইলকাই গুনদোয়ানের পূর্বপুরুষরা তুর্কি। কয়েক দিন আগে দুজন বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানের সঙ্গে দেখা করে। ওয়েজিল উপহার দিয়েছিলেন আর্সেনালের জার্সি আর গুনদোয়ান ম্যানচেস্টার সিটির। জার্মান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন তো বটেই, এ নিয়ে সমালোচনা করেন চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেলও। রাজনৈতিক অনেক নেতাও মুখ খোলেন দুই জার্মান ফুটবলারের বিপক্ষে। সমালোচনার এই ঝড়ের ঝাপ্টা থেকে বাঁচতে এবার ওয়েজিল ও গুনদোয়ান বার্লিনে দেখা করলেন জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক ওয়াল্টার স্টেইনমেইয়ারের সঙ্গে। এ দুজনকে নিয়ে যে ভুল-বোঝাবুঝি হচ্ছে খোদ জার্মান প্রেসিডেন্ট সেটা ধরিয়ে দিয়ে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ইলকে গুনদোয়ান আর মেসতু ওয়েজিল আমার সঙ্গে দেখা করার আগ্রহ জানিয়েছিল। সব ধরনের ভুল-বোঝাবুঝির অবসান করাটা গুরুত্বপূর্ণ দুজনের জন্যই।’ এএফপি

 

অভিনব প্রতিবাদ

কালো ফুটবলারদের দেখে বাঁদরের ডাক দেওয়াটা নতুন কিছু নয় রাশিয়ায়। গ্যালারি থেকে উড়ে আসে কলার খোসাও। এবারের বিশ্বকাপে দর্শকদের এমন বর্ণবাদী আচরণের শঙ্কায় খোদ আয়োজকরা। সেন্ট পিটার্সবার্গে গত মাসে রাশিয়ার বিপক্ষে ৩-১ গোলে জেতা ম্যাচে এমন বর্ণবাদী আচরণের শিকার হয়েছিলেন পল পগবা। ফিফা এ নিয়ে অভিযুক্তও করেছে রাশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনকে। পগবার মতো ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা যদি মাঠে এ ধরনের পরিস্থিতির শিকার হন, তাহলে কী হবে? এ নিয়ে গত মার্চে খেলোয়াড়দের সঙ্গে আলোচনা করেছেন কোচ গ্যারেথ সাউথগেট। সমাধান—প্রতিবাদ জানিয়ে মাঠে দাঁড়িয়ে পড়া! তাহলে যদি টনক নড়ে দর্শকদের। মাঠ ছেড়ে গেলে ফিফা শাস্তি হিসেবে বহিষ্কার করবে সেই দলকে। তাই মাঠ না ছেড়ে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ জানাবে ইংল্যান্ড। যদিও সাইথগেট মনে করেন, এ ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হবে না বিশ্বকাপে, ‘আমরা বর্ণবাদী আচরণের শিকার হলে কী করব, এ নিয়ে আলোচনা করেছি। প্রতিবাদ জানাব অবশ্যই। তবে আশা করছি বিশ্বকাপে এ ধরনের কিছু হবে না।’ গোলডটকম

 

জয়ে শুরু ইরানের

বিশ্বকাপে কখনো গ্রুপ পর্বের বাধা পার হতে পারেনি ইরান। এশিয়ার পরাশক্তিরা রাশিয়া বিশ্বকাপে পড়েছে স্পেন, পর্তুগাল, মরক্কোর সঙ্গে কঠিন গ্রুপে। তাই বলে ভয়ে কুঁকড়ে নেই তারা। রাশিয়ায় নিজেদের সেরাটা খেলতেই আসবেন কার্লোস কুইরোজের শিষ্যরা। সেই অভিযানে তাদের প্রস্তুতিটা হলো জয় দিয়ে। তেহরানের আজাদি স্টেডিয়ামে উজবেকিস্তানের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে ইরান। ১৬ মিনিটে রুজবি চেশমির হেডারে জয়সূচক গোলটি পায় তারা। এরপর আক্রমণের ধার বাড়িয়েও আর গোল বাড়াতে পারেনি ইরান। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে ৩৬ নম্বরে থাকা ইরান প্রাথমিক ৩৫ জনের নাম জানিয়েছে এরই মধ্যে। প্রস্তুতি ম্যাচে খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স দেখে চূড়ান্ত ২৩ জনের নাম জানাবেন পর্তুগিজ কোচ কুইরোজ। গোলডটকম



মন্তব্য